• শনিবার, জুলাই ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৫২ সকাল

জল্লাদ খুঁজছে শ্রীলঙ্কা

  • প্রকাশিত ০৪:০২ বিকেল ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯
শ্রীলঙ্কা জল্লাদ
জল্লাদ নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি দিয়েছে শ্রীলঙ্কার সরকার। ছবি: রয়টার্স

আগামী মাসে এই পদের জন্য সাক্ষাতকার অনুষ্ঠিত হবে

সর্বশেষ ৪৩ বছর আগে অর্থাৎ ১৯৭৬ সালে শ্রীলঙ্কায় সরকারিভাবে ফাঁসির আদেশ কার্যকর হয়েছিল। কিন্তু গত সপ্তাহে দেশটির প্রেসিডেন্ট মৈথ্রিপালা সিরিসেনা জানিয়েছেন, মাদক পাচারকারীদের সর্বোচ্চ শাস্তি হিসেবে আগামী দুই মাসের জন্য ফাঁসির বিধান চালু করতে চান তিনি।

গত জানুয়ারিতে ফিলিপাইনে রাষ্ট্রীয় সফরের সময় প্রেসিডেন্ট রদ্রিগো দুতার্তের মাদকের বিরুদ্ধে যুদ্ধের প্রশংসা করেছিলেন সিরিসেনা। যদিও পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে সহস্রাধিক মানুষ নিহত হওয়ার ঘটনায় বিশ্বব্যাপী সমালোচনার মুখে পড়তে হচ্ছে দুতার্তেকে।

মাদক পাচারকে শ্রীলঙ্কায় বড় ধরনের অপরাধ গণ্য করা হলেও ১৯৭৬ সালে দেশটিতে মৃত্যুদণ্ডের পরিবর্তে আজীবন কারাদণ্ডের বিধান চালু হয়।

সাউথ চায়না মর্নিং পোস্টের এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, দেশটির সর্বশেষ জল্লাদের মৃত্যু হয় ২০১৪ সালে। তিনি কখনোই কাউকে ফাঁসিতে ঝোলানোর কাজ করেননি, জীবনে প্রথমবারের মতো ফাঁসিকাষ্ঠ দেখে মানসিক অবসাদে ভুগতে শুরু করেন তিনি। প্রথম জল্লাদের মৃত্যুর চার বছর পর নিয়মরক্ষার্থে ২০১৮ সালে আরেকজনকে নিয়োগ দেয় শ্রীলঙ্কা সরকার।

ধারণা করা হচ্ছে, শিগগিরই আবার দেশটিতে সর্বোচ্চ শাস্তির বিধান চালু হতে যাচ্ছে। আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো বলছে, দেশটির কারা কর্তৃপক্ষ আপাতত দু'জন জল্লাদ নিয়োগের জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে।

দেশটির কারা কর্তৃপক্ষের মুখপাত্র থুশারা উপুলদেনিয়া বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, "সরকার ঠিক কখন মৃত্যুদণ্ডের শাস্তির বিধান পুনরায় চালু করবে তা আমাদের জানা নেই। কিন্তু শূন্যপদে আমরা দু'জন জল্লাদ নিয়োগ করব। সরকারের নির্দেশে মাদক পাচারকারীদের ফাঁসিতে চড়ানোর জন্য তারা সবসময় প্রস্তুত থাকবে।"

দেশটির সরকারি গণমাধ্যম ডেইলি নিউজে গত সোমবার একটি নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিও দেওয়া হয়। সেখানে ওই পদের জন্য বেতন ধরা হয়েছে দুইশ' মার্কিন ডলার।

তবে শর্ত হিসাবে বলা হয়েছে- প্রার্থীদেরকে অবশ্যই শ্রীলঙ্কান এবং পুরুষ নাগরিক হতে হবে। বয়স ধরা হয়েছে ১৮ থেকে ৪৫ বছর। সেইসাথে তাদেরকে হতে হবে “আদর্শ মানবিক চরিত্র” এবং “দৃঢ় মানসিকতাসম্পন্ন”।

আগামী মাসে এই পদের জন্য সাক্ষাতকার অনুষ্ঠিত হবে।

দেশটির সরকারি তথ্য অনুযায়ী, মাদক পাচারের দায়ে দোষী সাব্যস্ত ২৫ ব্যক্তিকে শিগগিরই ফাঁসিতে ঝুলতে হতে পারে।