• রবিবার, মে ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:৫৭ রাত

‘নতুন করে আর কোনও রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দেওয়া অসম্ভব’

  • প্রকাশিত ০৪:৩২ বিকেল মার্চ ১, ২০১৯
রোহিঙ্গা
ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন (ফাইল ছবি)।

‘‘আমি দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে, মিয়ানমার থেকে আসা আর কোনও শরণার্থীকে আশ্রয় দেওয়ার মতো অবস্থানে নেই বাংলাদেশ। ’’

মিয়ানমার থেকে আসা আর কোনও রোহিঙ্গা শরণার্থীকে বাংলাদেশে আশ্রয় দেওয়া সম্ভব নয় বলে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে জানিয়েছে বাংলাদেশ। সেনা অভিযানের মুখে প্রায় ৭ লাখ রোহিঙ্গা মুসলিম পালিয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়ার প্রায় ১৮ মাস পর এমন সিদ্ধান্তের কথা জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের কাছে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব শহিদুল হক এমন কথা জানিয়েছেন বলে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে।

পররাষ্ট্র সচিব বলেন, ‘‘আমি দুঃখের সাথে জানাচ্ছি যে, মিয়ানমার থেকে আসা আর কোনও শরণার্থীকে আশ্রয় দেওয়ার মতো অবস্থানে নেই বাংলাদেশ। ’’ এসময় মিয়ানমারকে ‘মিথ্যা প্রতিশ্রুতি এবং রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনবিরোধী’ কর্মকাণ্ডে অভিযুক্ত করেন।

নিরাপত্তা পরিষদকে তিনি জানান, ‘‘নিরাপদ অবস্থা না থাকায় একজন রোহিঙ্গাকেও মিয়ানমারে পাঠানো সম্ভব হয়নি।’’

উল্লেখ্য, গত জানুয়ারিতে মিয়ানমার রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে নিজেদের প্রস্তুত জানালেও, জাতিসংঘের প্রতিবেদনে রাখাইনের পরিবেশকে প্রত্যাবাসনের অনুপযোগী বলে উল্লেখ করা হয়েছে। এদিকে, ফিরে যাওয়ার আগে নিরাপত্তা এবং নাগরিকত্বের নিশ্চয়তা চেয়েছে রোহিঙ্গারা।

এখনও রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসনের বিষয়টি নিশ্চিত না হওয়ায় নিরাপত্তা পরিষদের একাধিক গুরুত্বপূর্ণ সদস্য মিয়ানমারের তীব্র সমালোচনা করেছেন।