• শনিবার, ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫২ রাত

শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে ঢাবির হল প্রভোস্টের পদ থেকে ড. মিজানের পদত্যাগ

  • প্রকাশিত ০৭:২৭ রাত মার্চ ৮, ২০১৯
ড. মিজান
শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফজলুল হক মুসলিম হলে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান। ছবি: সংগৃহীত

হল শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা অধ্যাপক মিজানুর রহমান ও তার ছেলেকে হলের শিক্ষার্থীদের কাছে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানান। বিক্ষোভটি একপর্যায়ে তার পদত্যাগের দাবিতে পরিণত হয়

শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে পদত্যাগ করেছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ফজলুল হক মুসলিম হলের প্রভোস্ট ও মানবাধিকার কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. মিজানুর রহমান। শুক্রবার হল অফিসের সামনেই তিনি পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, শুক্রবার ঢাবির হল মসজিদে নামাজ আদায় করছিলেন মৃত্তিকা পানি ও পরিবেশ বিভাগের এক জ্যেষ্ঠ শিক্ষার্থী। এসময় অসাবধানতাবশত প্রভোস্টের ছেলের পা ওই শিক্ষার্থীর মাথায় লাগে। নামাজ শেষে ওই শিক্ষার্থী প্রভোস্টের ছেলেকে জেরা করে ক্ষমা চাইতে বললে তিনি ওই শিক্ষার্থীকে অপমানজনক কথা-বার্তা বলেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে ওই শিক্ষার্থীর পক্ষে অবস্থান নিয়ে হল সংসদে ছাত্রলীগ প্যানেলের সহসভাপতি (ভিপি) প্রার্থী শাহরিয়ার সিদ্দিক, সাধারণ সম্পাদক (জিএস) প্রার্থী মাহফুজুর রহমানসহ হল শাখা ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা অধ্যাপক মিজানুর রহমান ও তার ছেলেকে হলের শিক্ষার্থীদের কাছে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানান। বিক্ষোভটি একপর্যায়ে তার পদত্যাগের দাবিতে পরিণত হয়।

এ বিষয়ে ড. মিজানুর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, আমি হলের সামনে থাকা অবস্থাতেই পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছি। 

এসময় অবরুদ্ধ অবস্থায় ঘটনাস্থলে ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি সঞ্জিত চন্দ্র দাস ও সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসেন যাওয়ার পরে প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক মিজানুর রহমান ছাত্রদের কাছে ক্ষমা চান এবং পদত্যাগের ঘোষণা দেন।

এ বিষয়ে জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামানের মুঠোফোনে কল করা হলে তিনি তা রিসিভ করেননি।