• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৪ সকাল

খুলনায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ১০ মামলার আসামি নিহত

  • প্রকাশিত ১১:৩৬ সকাল মার্চ ৯, ২০১৯
বন্দুকযুদ্ধ
প্রতীকী ছবি

চোরাই কসমেটিক সামগ্রি উদ্ধারের জন্য কৃষি কলেজের পেছনে বড় মাঠ এলাকায় যাওয়া হয়।

খুলনার দৌলতপুর থানার পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে মিরাজুল ইসলাম মিরাজ (২৭) নামের এক যুবক  নিহত হয়েছেন। গতকাল শুক্রবার রাত ১১টা ২০ মিনিটের দিকে থানার কৃষি কলেজের উত্তর পাশের মাঠে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত মিরাজুল ইসলাম মিরাজ ফুলবাড়িগেট জাব্দিপুর এলাকার মুজিবর রহমানের ছেলে। তার নামে মাদক, চুরি, ডাকাতিসহ ১০টি মামলা রয়েছে।

দৌলতপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজী মোস্তাক আহমেদ জানান, রাতে সেনপাড়া এলাকা থেকে মিরাজকে আটক করা হয়। এরপর তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী চোরাই কসমেটিক সামগ্রি উদ্ধারের জন্য কৃষি কলেজের পেছনে বড় মাঠ এলাকায় যাওয়া হয়। এ সময় সেখানে ওঁত পেতে থাকা তার সহযোগীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি করে। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। এর এক পর্যায়ে মিরাজ গুলিবিদ্ধ হয়। তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করে।

ওসি আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি এলজি, বন্দুকের দুটি গুলি, দুটি রামদা, একটি ছুরি, একটি স্ক্রু ড্রাইভার, চুরি করা বিভিন্ন মালামাল ও ৫০পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়েছে। দৌলতপুর জোনের সহকারী কমিশনার শেখ ইমরান এ অভিযানে নেতৃত্ব দেন।