• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫৪ দুপুর

ক্যাম্পাসে ঢুকেই ভোটে বাজিমাত, ‘অনিয়মের’ ফল প্রত্যাখ্যান

  • প্রকাশিত ০৪:৩৮ বিকেল মার্চ ১৩, ২০১৯
তানজিন তানহা
তানজিন তানহা। ছবি: সংগৃহীত

প্রথম বর্ষের এই শিক্ষার্থী আরও বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু হলে আমি ১০টা ভোট পেলেও মেনে নিতাম। কারচুপির নির্বাচনের ফলে বিজয়ী হয়ে শপথ নিতে চাই না।’

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ফল প্রত্যাখ্যান করে পুনরায় নির্বাচন চেয়েছেন সুফিয়া কামাল হল সংসদে জয় পাওয়া ছাত্র ইউনিয়ন নেত্রী তানজিন তানহা। নির্বাচিত হয়েও নির্বাচনের সার্বিক ফল বাতিল চেয়েছেন তিনি।

তানহা নিজেই বুধবার ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজী বিভাগের এই শিক্ষার্থী সুফিয়া কামাল হলে সদস্য পদে বাম ছাত্র সংগঠনগুলোর জোট- প্রগতিশীল ছাত্র ঐক্যের প্যানেল থেকে নির্বাচন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ৮৪১ ভোট পেয়ে জয় পেয়েছেন। তবে সামগ্রিকভাবে পুরো ডাকসু নির্বাচনে কারচুপির অভিযোগ এনে ভোট ফল প্রত্যাখ্যান করেছেন তিনি।  

এ বিষয়ে জানতে চাইলে লামইয়া তানজিন তানহা ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, আমি আমার ও আমার সংগঠন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়নের আদর্শিক জায়গা থেকে এই ভোটের ফলাফল প্রত্যাখ্যান করছি। আমরা একটি সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচন চেয়েছিলাম। কিন্তু এই নির্বাচনে বিভিন্ন অনিয়ম হয়েছে। 

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম বর্ষের এই শিক্ষার্থী আরও বলেন, ‘নির্বাচন সুষ্ঠু হলে আমি ১০টা ভোট পেলেও মেনে নিতাম। কারচুপির নির্বাচনের ফলে বিজয়ী হয়ে শপথ নিতে চাই না।’

তানহা মনে করেন, দীর্ঘ প্রায় তিন দশক ডাকসু নির্বাচন না হওয়ায় ক্যাম্পাসে ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠনগুলোর দখলদারিত্ব চলে এসেছে। ক্যাম্পাসে সুস্থ রাজনীতির চর্চা ও গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনার জন্য এবারের নির্বাচনে অংশ নিয়েছিলেন বলে জানান তিনি।  

ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, পুরো নির্বাচনেই ব্যাপক অনিয়ম ও কারচুপির ঘটনা ঘটেছে। এজন্য বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন শিক্ষার্থী হিসেবে আমি লজ্জিত। তাই এ নির্বাচনের ফল বাতিল করে পুনরায় ভোটের দাবি জানাচ্ছি।