• রবিবার, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:০৩ রাত

এশিয়ার দ্বিতীয় বৃহত্তম টেকনিক্যাল ফেস্টিভ্যালে রানার্সআপ বাংলাদেশ

  • প্রকাশিত ১২:০৮ দুপুর মার্চ ১৯, ২০১৯
বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে গৌরবের জায়গায় তুলে ধরা 'টিম বাংলাদেশ'
বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে গৌরবের জায়গায় তুলে ধরা 'টিম বাংলাদেশ'। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

বাংলাদেশের হয়ে রানার্সআপ হয়েছে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) দল 'টিম বাংলাদেশ'

এশিয়া মহাদেশের ২য় বৃহত্তম টেকনিক্যাল ফেস্টিভ্যালে রোবোটিক্স সেগমেন্ট সাইবর্গ ব্রেক ইনে রানার্সআপ হয়েছে সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবি) দল ''টিম বাংলাদেশ''। গত ১৫ই মার্চ থেকে টানা তিনদিন ভারতে অনুষ্ঠিত এই প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশের হয়ে অংশগ্রহণ করে তারা রানার্সআপ স্থান লাভ করে। 

বিশ্ব দরবারে বাংলাদেশকে গৌরবের জায়গায় তুলে ধরা "টিম বাংলাদেশ" এর দলের সদস্য হলেন মোট পাঁচজন। যাদের মধ্যে তিনজন এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। তারা হলেন শাবির ইলেকট্রিক্যাল এন্ড ইলেকটনিক্স ইঞ্জিনিয়ারিং (ইইই) বিভাগের ২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের ফজলে এলাহি তন্ময়, শিক্ষার্থী রবি পাল ও একই বর্ষের গণিত বিভাগের মিনহাজুল আবেদিন। বাকি দুইজন হলেন পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের নূর-ই জান্নাত এবং ইইই বিভাগের নুসরাত জাহান।

আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিযোগিতা করার আগে ঢাকায় আহসানউল্লাহ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে আঞ্চলিক পর্যায়ের প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। সেখানে শাবির দুটি দলসহ সারাদেশ থেকে মোট ৫৮টি দল অংশগ্রহণ করেন। আঞ্চলিক প্রতিযোগিতায় শাবির টিম "বাংলাদেশ"

ওইসময় "সাস্ট ক্র‍্যাকার নাট দল" নাম ব্যবহার করে প্রথম স্থান অর্জন করেন। প্রতিযোগিতায় শাবির অপর দলটি ওই সময় তৃতীয় স্থান লাভ করে।

টিম "বাংলাদেশ" এর দলনেতা ফজলে এলাহি তন্ময় বলেন, আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিযোগিতা করার জন্য গত ১৩ই মার্চ টিম "বাংলাদেশ" ভারতে আসেন। সেখানে ১৫ই মার্চ থেকে অনুষ্ঠিত টানা তিনদিন প্রতিযোগিতা শেষে গত ১৭ই মার্চ ভারতের একটি দলের কাছে ১০ পয়েন্টের ব্যবধানে পরাজিত হয়ে রানার্সআপ স্থান লাভ করেন।

তিনি বলেন, এই ধরনের প্রতিযোগিতা আমাদের জন্য প্রথম ছিলো। পুরো বাংলাদেশকে তুলে ধরার সুযোগ পেয়েছি বলে টিমের নাম পরিবর্তন করে দিয়েছি 'বাংলাদেশ'।

তিনি আরও বলেন, টিম "বাংলাদেশ" এর সদস্য আমরা পাঁচজন। আন্তর্জাতিক পর্যায়ে প্রতিযোগিতার জন্য যে অর্থ প্রয়োজন হয় তা আমাদের কাছে সংকটের কারণ হওয়ায় আমাদের দলের তিনজন এই প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করি। সেখানে ভারতের বিভিন্ন প্রদেশ ও এশিয়ার বিভিন্ন দেশের দল প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণ করেন। ভারতে অনুষ্ঠিত প্রতিযোগিতার মোট ৪টি পর্বে অনুষ্ঠিত হয়। প্রথমে বাছাই পর্ব, কোয়াটার ফাইনাল, সেমিফাইনাল এবং পরে ফাইনাল প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত হয়। ফাইনাল পর্বের প্রতিযোগিতার শেষ মুহূর্তে অটোনোমাস রোবটে দূর্ভাগ্যবশত একটা টাস্ক করতে না পারায় একটুর জন্য চ্যাম্পিয়নশিপ মিস করে ১০ পয়েন্টের ব্যবধানে ভারতের একটি দলের কাছে হেরে রানার্সআপ স্থান অর্জন করে "টিম বাংলাদেশ"।