• শুক্রবার, এপ্রিল ০৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৭ রাত

সিইসি: নির্বাচনে কোন দলের অংশগ্রহণ না করা আমাদের বিষয় না

  • প্রকাশিত ০৭:০২ রাত মার্চ ২৮, ২০১৯
সিইসি নুরুল হুদা
বৃহস্পতিবার বিকেলে ফেনী সার্কিট হাউজে উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময় করেন সিইসি নুরুল হুদা। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন।

'স্থানীয় সরকারের এই নির্বাচনে আমরা অনেক ভালো অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি'

নির্বাচনে কোন রাজনৈতিক দলের অংশগ্রহণ না করা নির্বাচন কমিশনের (ইসি) বিষয় নয় বলে মন্তব্য করেছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা। বৃহস্পতিবার  বিকেলে ফেনী সার্কিট হাউজে  উপজেলা নির্বাচন উপলক্ষে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে  এ কথা বলেন তিনি।

সিইসি বলেন, “নির্বাচনে কোন দলের অংশগ্রহণ করা কিংবা না করা আমাদের বিষয় না। সেটা তাদের রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত। কিন্তু আমরা যাদের নিয়ে কাজ করব, তাঁরা যেন নির্বাচনগুলো সুষ্ঠু, প্রতিযোগিতা ও প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক হয়, সেদিকে আমরা কঠোর নজর রেখেছি । আমার মনে হয়, আমরা সফল হয়েছি। যে নির্বাচনগুলো ইতিমধ্যে হয়েছে, তার সবগুলোই সুষ্ঠুভাবে হয়েছে”।

“স্থানীয় সরকারের এই নির্বাচনে আমরা অনেক ভালো অভিজ্ঞতা অর্জন করেছি। যদিও একটা খারাপ অভিজ্ঞতা আছে। তবে এর জন্য আমরা কেউ দায়ী নই। বড় সব  রাজনৈতিক দলের অনেকে এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেনি। ফলে নির্বাচন যেভাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক বা প্রতিযোগিতামূলক হওয়ার কথা ছিল, তা হয়নি”, যোগ করেন তিনি।

এসময় উপজেলা নির্বাচনে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তাদের উদ্দেশ্যে সিইসি নুরুল হুদা বলেন, “সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন পরিচালনার জন্য আমরাই সবকিছু না। সবকিছু হলো ভোটার, জনগণ।  জনগণকে নির্বাচনে সম্পৃক্ত করে আইনগতভাবে নির্বাচনে যে নিয়ম কানুন আছে, সেগুলো প্রয়োগ করে প্রতিযোগিতামূলক ভাবে নির্বাচন অনুষ্ঠানে যার যে দায়িত্ব আছে তা পালন করবেন”।

পরবর্তীতে সিইসি একটি অবাধ, সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন নিশ্চিত করার লক্ষ্যে প্রায় এক ঘণ্টাব্যাপী আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও নির্বাচনী কর্মকর্তাদের সঙ্গে রুদ্ধদ্বার বৈঠক করেন। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার এএসএম জাহাঙ্গীর আলম সরকার, রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক পিকে এনামুল করিম,, জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা আবু নাসের পাটোয়ারী ও  আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর কর্মকর্তারা।