• বুধবার, জুলাই ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৩৬ রাত

বাসের সুপারভাইজারকে চলন্ত গাড়ির নিচে ফেলে হত্যা!

  • প্রকাশিত ০৭:০৪ রাত এপ্রিল ৫, ২০১৯
যশোর
যশোরের মানচিত্র

সাইড দিতে বলায় তাকে একটি চলন্ত তেলবাহী ট্যাংকারের নিচে ধাক্কা দিয়ে ফেলে হত্যা করে কতিপয় ট্রাক চালক

যশোরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি যাত্রীবাহী বাসের সুপারভাইজারকে চলন্ত গাড়ির নিচে ফেলে হত্যা করেছে কয়েকজন ট্রাকচালক। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে যশোরের অভয়নগর উপজেলার নওয়াপাড়া হাইওয়ে থানার পাশে যশোর-খুলনা মহাসড়কে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন অভয়নগর থানার সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) জিয়াউর রহমান।

নিহত বাস সুপারভাইজার আকাশ মাতুব্বরের (৪০) বাড়ি শরীয়তপুরের পালং উপজেলার দোমসার গ্রামে। 

এসআই জিয়াউর রহমান ঘটনা প্রসঙ্গে জানান, শরীয়তপুর থেকে ছেড়ে আসা 'ফেম' পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাস বেলা ১২টার দিকে নওয়াপাড়ায় হাইওয়ে থানার পাশে ফেরিঘাট এলাকায় পৌঁছে। এসময় যশোর-খুলনা মহাসড়ক পুনর্নির্মাণের কার্যক্রম চলমান থাকার কারণে ঐ সড়কে বেশ যানজটের সৃষ্টি হয়।

এরই মধ্যে যানজটপূর্ণ সড়কের ঠিক পাশেই একটি ট্রাক ধোয়ার কাজ চলছিল। নিহত বাস সুপারভাইজার আকাশ মাতুব্বর এ সময় বাস থেকে নেমে ঐ ট্রাকচালককে সাইড দিতে অনুরোধ করলে আকাশের সাথে ঐ ট্রাকের চালক এবং তার সহকারীর সাথে বাগবিতণ্ডার সৃষ্টি হয়। বাগবিতণ্ডার এক পর্যায়ে আরও পাঁচ-ছয় জন ট্রাকচালক একজোট হয়ে আকাশকে প্রচণ্ড মারধোর করেন এবং একটি চলন্ত তেলবাহী ট্যাংকারের নিচে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন। এতে ট্যাংকারের পেছনের চাকায় পিষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই আকাশের মৃত্যু হয়।

পরবর্তীতে দুপুর একটার দিকে তার লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠায় স্থানীয় পুলিশ।

এ প্রসঙ্গে অভয়নগর থানার এসআই জিয়াউর রহমান ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "আকাশ মাতুব্বরকে চলন্ত তেলবাহী ট্যাংকারের নিচে ফেলে হত্যা করা হয়েছে। আমরা এই ঘটনায় জড়িত চারজনের নাম পরিচয় জানতে পেরেছি। তাদের গ্রেপ্তারে অভিযানের প্রস্তুতি চলছে। এছাড়াও এই ঘটনায় একটি মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।