• শুক্রবার, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৪৬ বিকেল

এবার আত্মসমর্পণ করবে ৬১৪ সশস্ত্র চরমপন্থী

  • প্রকাশিত ০৭:৫৭ রাত এপ্রিল ৭, ২০১৯
স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়

৯ এপ্রিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশের আইজি'র উপস্থিতিতে পাবনার শহীদ আমিন উদ্দিন স্টেডিয়ামে অস্ত্রসহ আত্মসমর্পণ করবেন তারা

আগামী ৯ এপ্রিল দেশের ১৫টি জেলার ৬১৪ জন সশস্ত্র চরমপন্থী পাবনায় আনুষ্ঠানিক ভাবে আত্মসমর্পণ করতে যাচ্ছেন।

রবিবার দুপুরে এ উপলক্ষে পাবনা প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এক সংবাদ সম্মেলনে এই তথ্য জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারম্যান এবং পাবনা-১ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাডভোকেট শামসুল হক টুকু।

তিনি বলেন, "আগামী ৯ এপ্রিল স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও পুলিশের আইজি'র উপস্থিতিতে পাবনার শহীদ আমিন উদ্দিন স্টেডিয়ামে আনুষ্ঠানিক ভাবে পাবনাসহ দেশের ১৫ জেলার ৬১৪ জন চরমপন্থী দলের নেতা ও সদস্যরা অস্ত্রসহ আত্মসমর্পণ করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসবেন"।

সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে শামসুল হক টুকু আরো বলেন, "স্বাধীনতার পর থেকে এদেশে পূর্ব-বাংলার কমিউনিস্ট পার্টি (লালপতাকা, জনযুদ্ধ, সর্বহারা, বিপ্লবী কমিউনিষ্ট পার্টি),কাদামাটি গ্রুপ, নকশালসহ নানা নামে বিভিন্ন সশস্ত্র গ্রুপ বিপুল সংখ্যক জনগোষ্ঠির জানমালের ক্ষতি করে আইনশৃংখলা পরিপন্থি কর্মকান্ড চালিয়ে আসছে"।

"যারা আত্মসমর্পন করে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসবেন, তাদের স্বস্ব যোগ্যতার ভিত্তিত্বে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থার বিষয়ে স্বদিচ্ছা রয়েছে সরকারের", যোগ করেন তিনি।

সাংবাদিকদের প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি আরও বলেন, "যারা আত্মসমর্পন করছেন, যাদের বিরুদ্ধে আদালতে ও থানা গুলোতে মামলা রয়েছে। সেগুলোও আইনগত প্রক্রিয়ার মাধ্যমে চলবে। পাশাপাশি যারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসছেন, তারা যেন পরবর্তীতে পূর্বের অবস্থানে ফিরে যেতে না পারে ও তারা যেন কোন রাজনৈতিক গোষ্ঠির মদদে পথভ্রষ্ট না হয় সেদিক  খেয়াল রাখবে সরকারি গোয়েন্দা সংস্থা"।

এদিকে তাদের দলের তৃণমূল পর্যায়ে এই আত্মসমর্পণ নিয়ে অসন্তোষ রয়েছে কিনা এমন প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, "সরকার বৃহত্তর জনগোষ্ঠির স্বার্থে আইন-শৃঙ্খলা দমন ও তাদের জানমালের নিরাপত্তায় যে কোন ধরণের উদ্যোগ গ্রহণ করতে পারেন। সেখানে দলমত দেখার কোন সুযোগ নেই"।

সংবাদ সম্মেলনে আরো জানা যায়, আগামী ৯ এপ্রিল বিকেল ৩টায় পাবনা শহীদ এডভোকেট আমিন উদ্দিন ষ্টেডিয়ামে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের উপস্থিতিতে আড়ম্বরপূর্ণ এক অনুষ্ঠানে চরমপন্থীদের বিভিন্ন গ্রুপের সদস্য এবং নেতারা আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মসমর্পণ করবেন। এসময় বাংলাদেশ পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি), পাবনা জেলা প্রশাসন, স্থানীয় সংসদ সদস্যবৃন্দসহ আইন শৃংখলা বাহিনীর উর্ধতন কর্মকর্তারা উপস্থিত থাকবেন। অনুষ্ঠানে সঙ্গীত পরিবেশন করবেন শিল্পী মমতাজ বেগম এমপিসহ অন্যান্য শিল্পীবৃন্দ।

উল্লেখ্য, এর আগেও ১৯৯৯ সালে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের বিভিন্ন জেলায় তৎপর ৪ শতাধিক চরমপন্থী আত্মসমর্পণের মাধ্যমে স্বাভাবিক জীবনে ফিরে আসেন।