• রবিবার, মে ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৪৮ বিকেল

তথ্যমন্ত্রী: বিদেশি চ্যানেলে দেশি বিজ্ঞাপন প্রচার করলে দণ্ড

  • প্রকাশিত ০৩:৪৭ বিকেল এপ্রিল ১০, ২০১৯
হাছান মাহমুদ
তথ্যমন্ত্রী হাছান মাহমুদ। ফাইল ছবি

টকোর নেতারা বলেন, বিজ্ঞাপনে বিদেশি মডেল ব্যবহারের ক্ষেত্রেও নীতিমালা সংশোধন প্রয়োজন।

তথ্যমন্ত্রী ড. হাসান মাহমুদ বলেছেন, বিদেশি চ্যানেলে ডাউনলিংক করে বাংলাদেশি কোনও বিজ্ঞাপন প্রচার করে আইন লঙ্ঘন করলে তাদের লাইসেন্স বাতিলসহ আর্থিক জরিমানা ও দণ্ড দেওয়া হবে।

তিনি আরও বলেন, বাংলাদেশে ব্যবসা করতে চাইলে সরকারের আইন মানতেই হবে। এ ব্যাপারে ছাড় দেওয়া হবে না।

বুধবার টিভি চ্যানেল মালিকদের সংগঠন ‘এ্যাটকোর’ এর সঙ্গে মিটিং শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তিনি ।

মাছরাঙা টিভির ব্যবস্হাপনা পরিচালক ও এ্যাটকোর সভাপতি অঞ্জন চৌধুরীর নেতৃত্বে টিভি মালিকরা এতে উপস্হিত ছিলেন।

মন্ত্রী বলেন, আমাদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এপ্রিলের ১ তারিখের পর কোনও বিদেশি চ্যানেলে ডাউনলিংক করে বাংলাদেশি বিজ্ঞাপন প্রচার করা যাবে না। তারপরও এমন অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। আমরা অভিযোগ পাওয়ার পর দুটি চ্যানেলকে ৭ দিনের মধ্যে জবাব দিতে নোটিশ দেওয়ার পর ১৫ দিন সময় চেয়েছে তারা।

একইসঙ্গে বিদেশি মডেল দিয়ে বিজ্ঞাপন নির্মাণের ক্ষেত্রেও বিধি নিষেধ আনার দাবি জানিয়ে এ্যাটকোর নেতারা বলেন, বিজ্ঞাপনে বিদেশি মডেল ব্যবহারের ক্ষেত্রেও নীতিমালা সংশোধন প্রয়োজন।

এ বিষয়ে তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিষয়টি আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

এ্যাটকোর সভাপতি অঞ্জণ চৌধুরী বলেন, বিদেশি চ্যানেলে বিজ্ঞাপন প্রচার এখন সম্পূর্ণ বন্ধ হয়নি। বিদেশি চ্যানেলগুলোকে ক্লিন ফিড নিশ্চত করতে হবে। আগামী ১ বছরের মধ্যে ক্যাবল অপারেটর ব্যবস্হা ডিজিটালাইজেশনে আমার দাবি।

দুটি প্রতিষ্ঠান ডাউনলিঙ্ক করে বিদেশি চ্যানেল দেখায়। ন্যাশন ওয়াইড মিডিয়া ও জাদু মিডিয়া লিমিটেড। তারাই নিয়ম লঙ্ঘন করে দেশি বিজ্ঞাপন বিদেশি চ্যানেলে প্রচার করছে। প্রতিষ্ঠান দুটি ১৫ দিন সময় চেয়ে সরকারের নোটিশের জবাব দিয়েছে।