• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৮ রাত

হাসপাতালে ডাক্তার নেই, রাস্তাতেই সন্তান প্রসব

  • প্রকাশিত ০৬:২৮ সন্ধ্যা এপ্রিল ১৮, ২০১৯
নবজাতক
প্রতীকী ছবি

প্রসব বেদনা নিয়ে হাসপাতালে গেলেও ছিলনা কোনও ডাক্তার

টাঙ্গাইলের ভুঞাপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে সেবা না পেয়ে রাস্তায় খোলা আকাশের নিচে সন্তান প্রসব করেছেন এক প্রসূতি নারী। বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স চত্বর থেকে ১শ’ গজ দুরে এ ঘটনা ঘটে।

প্রসূতির পরিবার ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার ভোর রাতে ঐ নারীর প্রসব বেদনা উঠলে তাকে দ্রুত ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসা হয়। 

তবে, সেখানে কোন ডাক্তার না থাকায় তার পরিবার দ্রুত তাকে অন্য কোথাও ভর্তি করার জন্য হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে আসে। তবে, তাকে অন্য হাসপাতালে নেওয়ার পথে থানা মোড় পর্যন্ত পৌঁছালে সেখানেই সন্তান প্রসব করেন ভুক্তভোগী ঐ প্রসূতি নারী।  

প্রসূতির স্বজনরা জানান,  ভোরে প্রসব বেদনা উঠলে ওই  হাসপাতালে গেলে কোন ডাক্তার নার্স কাউকে না পেয়ে বেরিয়ে আসি। অন্য হাসপাতালে নেওয়ার পথেই সন্তান প্রসব করে ঐ নারী যা খুবই কষ্টদায়ক। 

তবে হাসপাতালে ডাক্তার না থাকার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন ঐ হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার। তিনি জানান, "এই গর্ভবতি মা হাসপাতালে আসছিল ঠিকই, কিন্তু কাউকে না বলেই চলে গেছে। রাস্তায় কি হয়েছে তা আমরা জানি না"।

এ ব্যাপারে ভূঞাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. তৌফিক এলাহি ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "আমি শুনেছি যে এরকম একজন প্রসুতি রোগী এসেছিলেন। কিন্তু ঐ সময় কর্তব্যরত মেডিকেল এসিষ্ট্যান্ট ওয়াশরুমে ছিলেন। তাই কাউকে না পেয়ে তারা হাসপাতাল ছেড়ে চলে যান"।