• বুধবার, আগস্ট ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:০০ রাত

'কক্সবাজারে রোহিঙ্গারা হতাহত হলে দায় ভাসানচরবিরোধীদের নিতে হবে'

  • প্রকাশিত ০৫:৪৯ সন্ধ্যা এপ্রিল ২৫, ২০১৯
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন
পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন। ফাইল ছবি।

'বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের জন্য প্রয়োজনীয় সবকিছু করছে'

কক্সবাজারে বর্ষাকালে রোহিঙ্গা শিবিরে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটলে যারা রোহিঙ্গাদের ভাসানচরে স্থানান্তরের বিরোধিতা করছেন তাদের দায় নিতে হবে বলে মন্তব্য করেছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. একে আবদুল মোমেন।

বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে জাতিসংঘ শরণার্থী সংস্থার হাইকমিশনার ফিলিপো গ্র্যান্ডি, আন্তর্জাতিক অভিবাসন সংস্থার মহাপরিচালক অ্যান্টনিও ভিটোরিনো ও জাতিসংঘের মানবিকবিষয়ক সমন্বয় দপ্তরের প্রধান মার্ক লোককের সাথে যৌথ সাক্ষাৎ শেষে তিনি সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে ড. মোমেন বলেন, সফররত জাতিসংঘের তিন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার সাথে বৈঠককালে এ বার্তা তিনি তাদের দিয়েছেন।

সাক্ষাতে জাতিসংঘের তিন ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাকে বাংলাদেশ আরও জানিয়েছে যে প্রায় এক লাখ রোহিঙ্গার বাসস্থানের জন্য বাংলাদেশ সরকার ইতিমধ্যে ভাসানচর দ্বীপকে প্রস্তুত করে তুলেছে।

এর পাশাপাশি এ প্রসঙ্গে পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাতিসংঘ কর্মকর্তাদের মিয়ানমারে যাওয়ার উৎসাহ দিয়ে বলেন, বাংলাদেশ রোহিঙ্গাদের জন্য প্রয়োজনীয় সবকিছু করছে।

উল্লেখ্য, কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরগুলোর ঘনবসতি সমস্যা দূর করতে ভাসানচরে তাদের স্থানান্তরের প্রকল্পটি সাহায্য করবে বলে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এর আগে জানানো হয়।

এর আগে বুধবার জাতিসংঘের তিন কর্মকর্তা তারা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলমের সাথে দেখা করেন। বৃহস্পতি ও শুক্রবার কক্সবাজারের রোহিঙ্গা শিবিরগুলো পরিদর্শন করবেন তারা।