• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:০৬ রাত

দুর্নীতির অভিযোগে গড়াইয়ের খননকাজ স্থগিত করলেন প্রতিমন্ত্রী

  • প্রকাশিত ০৫:৩৪ সন্ধ্যা এপ্রিল ২৬, ২০১৯
পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক
শুক্রবার কুষ্টিয়ার গড়াই নদী খননকাজ পরিদর্শন করেন পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

চলতি বছরের মার্চ থেকে তৃতীয় দফায় ৫৯০ কোটি টাকা ব্যায়ে কুষ্টিয়া গড়াই নদী খননের মেগা প্রকল্পের কাজ শুরু হয়।

কুষ্টিয়ার গড়াই নদীর খনন কাজ পরিদর্শন করতে শুক্রবার (২৬ এপ্রিল) হরিপুরে যান পানিসম্পদ প্রতিমন্ত্রী জাহিদ ফারুক। কিন্তু খননকাজে পানি উন্নয়ন বোর্ডের দুর্নীতির অভিযোগ শুনে পদ্মা-গড়াই মোহনায় চলা খনন কাজ সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেন তিনি।

এ সময় জাহিদ ফারুক বলেন, আমি দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই কুষ্টিয়ার গড়াই নদী প্রকল্পের কথা শুনে আসছি। কিন্তু নিজের চোখে এর অবস্থা দেখে দুঃখ পেয়েছি। এমন একটা প্রকল্প এভাবে চলতে দেওয়া যায় না। নদীটিকে একটি নালার মতো করে খনন করা হচ্ছে, এটাকে আরও চওড়া করতে হবে। 

ড্রেজিংয়ে বিভিন্ন অনিয়ম ও তেল চুরির বিষয়ে গণমাধ্যমকর্মীরা প্রতিমন্ত্রীকে জানালে তিনি বলেন, আপনাদের কাছে কোনও প্রমাণ থাকলে আমাকে দিন। অবশ্যই অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ সময় প্রতিমন্ত্রী পানি উন্নয়ন বোর্ড কুষ্টিয়ার কর্মকর্তাদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন। 

উল্লেখ্য, চলতি বছরের মার্চ থেকে তৃতীয় দফায় ৫৯০ কোটি টাকা ব্যায়ে কুষ্টিয়া গড়াই নদী খননের মেগা প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। এর আগের দুই দফায় এই প্রকল্পে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে।