• শুক্রবার, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৪৬ বিকেল

ব্র্যাক শিক্ষার্থীর নিহতের ঘটনায় রিমান্ডে উবার বাইকার ও কাভার্ড ভ্যান চালক

  • প্রকাশিত ০৬:৫৪ সন্ধ্যা এপ্রিল ২৮, ২০১৯
ফাহমিদা লাবণ্য
বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) রাজধানীতে এক সড়ক দুর্ঘটনায় মারা যান ব্র্যাক বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফাহমিদা লাবণ্য। ছবি: ফেসবুক

শুক্রবার রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে উবার বাইকার সুমন এবং শনিবার কাভার্ড ভ্যানচালক আব্দুর রহমানকে আশুলিয়া থেকে গ্রেফতার করে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ

সড়ক দুর্ঘটনায় ব্র্যাক বিশ্বিবদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ফাহমিদা হক লাবণ্য (২১) নিহতের ঘটনায় তাকে বহনকারী উবার বাইকের চালক সুমন হোসেন (২৭) ও কাভার্ড ভ্যান চালক আনিছুর রহমানের (২৩)রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রবিবার (২৭ এপ্রিল) দুপুরের পর মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শেরেবাংলা নগর থানার পুলিশের (উপ-পরিদর্শক) নুরুল ইসলাম সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করে আসামিদের আদালতে হাজির করেন। ঢাকা মহানগর হাকিম বাকী বিল্লাহ শুনানি শেষে সুমন হোসেনকে দুই দিন ও আনিছুর রহমানকে চার দিনের রিমান্ডে পাঠানোর আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট থানার সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা (জিআরও) ইউসুফ আলী খান এ তথ্য জানান।

তিনি জানান, আসামিপক্ষের আইনজীবী শহিদুল ইসলাম রিমান্ড বাতিল চেয়ে জামিনের আবেদন করেন। শুনানিতে তিনি বলেন, উবার চালক সুমন হোসেন নিজেও অনেক ইনজুরি হয়েছেন। তার নিজের হেলমেটটি ভেঙে গেছে। তিনি নিজেও মারা যেতে পারতেন। সুমন হোসেনকে রিমান্ডে নেওয়ার কোনও যুক্তিকতা নেই। অপরদিকে রাষ্ট্রপক্ষের সাধারণ নিবন্ধন কর্মকর্তা জিআরও জামিন বাতিলের আবেদন করে রিমান্ডের দাবি জানান। উভয় পক্ষের শুনানি শেষে বিচারক রিমান্ডের এ আদেশ দেন।

গত বৃহস্পতিবার (২৫ এপ্রিল) রাজধানীর শেরেবাংলা নগরে উবারের বাইকে করে যাওয়ার সময় কাভার্ড ভ্যানের ধাক্কায় ফাহমিদা হক লাবণ্য (২১) নিহত হন।

পরদিন শুক্রবার রাজধানীর মোহাম্মদপুর থেকে উবার বাইকার সুমন এবং শনিবার কাভার্ড ভ্যানচালক আব্দুর রহমানকে আশুলিয়া থেকে গ্রেফতার করে শেরেবাংলা নগর থানা পুলিশ।

এদিকে রবিবার ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) তেজগাঁও বিভাগের উপকমিশনার বিপ্লব কুমার সরকার তার কার্যালয় সাংবাদিকদের বলেন, লাবণ্য যে উবারের বাইকের আরোহী ছিলেন, সেটির চালক ভুয়া ঠিকানা দিয়ে নিবন্ধন নিয়েছিলেন। তিনি বলেন, চালক সুমন ভুয়া ঠিকানা ব্যবহার করায় তাকে খুঁজে পেতে পুলিশের সময় লেগেছে। উবার কর্তৃপক্ষও প্রথমে সহযোগিতা করেনি বলে অভিযোগ করেন তিনি।