• বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

বাবা-মা বাড়িতে নেই, এই সুযোগে 'ধর্ষণ'

  • প্রকাশিত ১২:১৯ দুপুর মে ১, ২০১৯
ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি

এক পর্যায়ে ওই স্কুল ছাত্রীর চিৎকারে তার বাবা মা দৌড়ে এলে রাজু পালিয়ে যান।

পঞ্চগড় সদর উপজেলায় অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনায় গত সোমবার রাতে পঞ্চগড় সদর থানায় একটি মামলা করেন ওই কিশোরীর মা। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নে এ ঘটনা ঘটে। গত ২৬ এপ্রিল বেলা ১১টার দিকে ওই স্কুলছাত্রীকে বাড়িতে রেখে তার বাবা-মা বাড়ির পাশেই পাটক্ষেতে কাজ করছিলেন। এমন সময় একই এলাকার রাজু ইসলাম (২১) বাড়িতে প্রবেশ করে ওই স্কুলছাত্রীর কাছে সিগারেট জ্বালানোর জন্য গ্যাস লাইটার চান। সে লাইটার এনে দেওয়ার জন্য ঘরে প্রবেশ করলে রাজুও তার পেছন পেছন যান। এরপর তার মুখ চেপে ধর্ষণ করেন রাজু। এক পর্যায়ে ওই স্কুল ছাত্রীর চিৎকারে তার বাবা মা দৌড়ে এলে রাজু পালিয়ে যান।

এজাহারে আরও বলা হয়, অভিযুক্ত রাজু বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য স্থানীয় প্রভাবশালীদের মাধ্যমে শালিসের প্রস্তাব দেয়। কিন্তু শালিস না করে তারা কালক্ষেপণ শুরু করে। স্থানীয়ভাবে বিচার না পেয়ে সোমবার রাতে অভিযুক্ত রাজুকে আসামি করে মামলা করেন ওই স্কুলছাত্রীর মা। মামলার পর থেকেই পলাতক রয়েছে রাজু। 

পঞ্চগড় সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু আক্কাস আহমদ জানান, ধর্ষণের শিকার ওই স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে থানায় একটি মামলা করেছেন। আসামিকে গ্রেপ্তারের জন্য পুলিশের অভিযান চলছে।