• শনিবার, আগস্ট ২৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪১ রাত

মিয়ানমারে বিমান দুর্ঘটনা তদন্তে ৬ সদস্যের কমিটি

  • প্রকাশিত ০২:৩৭ দুপুর মে ৯, ২০১৯
মিয়ানমার বিমান
মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে দুর্ঘটনার শিকার বাংলাদেশ বিমানের উড়োজাহাজ। ছবি: সংগৃহীত

বিমানটি সন্ধ্যা ৬টা ২২ মিনিটে ইয়াঙ্গুন বিমান বন্দরে অবতরণকালে বৈরি আবহাওয়ার কবলে পড়ে রানওয়ে থেকে বাইরে চলে যায়

মিয়ানমারের ইয়াঙ্গুন বিমানবন্দরে উড়োজাহাজ ছিটকে পড়ার ঘটনার তদন্ত করছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (৯ মে) বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) শাকিল মেরাজ ইউএনবিকে জানান, ইয়াঙ্গুন বিমানবন্দরে বুধবার সন্ধ্যায় উড়োজাহাজ ছিটকে পরার ঘটনায় বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের চিফ অফ সেফটি ক্যাপ্টেন সোয়েব চৌধুরীকে প্রধান করে ছয় সদস্যের একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে।

তিনি বলেন, “এ ঘটনায় আহতদের মধ্যে চারজন হাসপাতাল থেকে রিলিজ নিয়েছেন। আরও ১৪ জন এখনও হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন। আহতদের সর্বোচ্চ চিকিৎসার ব্যবস্থা করছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স কর্তৃপক্ষ।’’

এদিকে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম নাইম হাসান ইউএনবিকে জানান, “বিমানের দুর্ঘটনায় বেসামরিক বিমান পরিবহন কর্তৃপক্ষ পৃথক একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। তদন্ত কমিটি সম্পর্কে বিস্তারিত পরে জানানো হবে।”

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ঢাকা থেকে ইয়াঙ্গুনগামী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের ড্যাশ-৮ কিউ ৪০০ উড়োজাহাজ বিজি-০৬০ ফ্লাইটটি বুধবার বিকাল ৩টা ৪৫ মিনিটে ঢাকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করে। ফ্লাইটটি সন্ধ্যা ৬টা ২২ মিনিটে ইয়াঙ্গুন বিমান বন্দরে অবতরণকালে বৈরি আবহাওয়ার কবলে পড়ে রানওয়ে থেকে বাইরে চলে যায়।

বিমানটিতে ১ শিশুসহ ২৯ জন যাত্রী, ২ জন পাইলট, ২ জন কেবিন ক্রু ও ২ জন গ্রাউন্ড ইঞ্জিনিয়ার ছিলেন। ওই ফ্লাইটের ৩৫ জন আরোহীর সকলেই নিরাপদে আছেন।


আরো পড়ুন- ছবিতে মিয়ানমারে বাংলাদেশ বিমানের দুর্ঘটনা


আরো পড়ুন- মিয়ানমারের বিমানবন্দরে দুর্ঘটনার শিকার বাংলাদেশ বিমান