• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৫৫ সকাল

'বকশিশ' না দেয়ায় পিকআপভর্তি ডিম নষ্ট, ৬ পুলিশ সদস্য প্রত্যাহার

  • প্রকাশিত ০৫:৫২ সন্ধ্যা মে ১৭, ২০১৯
ডিম
টাকা না পেয়ে রশি কেটে দিয়ে পিকআপের প্রায় সব ডিম নষ্ট করার অভিযোগ উঠেছে পুলিশের বিরুদ্ধে। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

'পিকআপে ৩৫হাজার ১শ ডিম ছিল যার মূল্য প্রায় তিন লাখ টাকা'

নাটোরে 'বকশিশ' না পেয়ে ডিম বোঝাই পিক-আপের রশি কেটে রাস্তায় ফেলে ডিম নষ্ট করার অভিযোগে ৬ পুলিশ সদস্যকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। হাইওয়ে পুলিশের বগুড়া জোনের পুলিশ সুপার (এসপি)জাহাঙ্গীর হোসেন  এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জানা যায়, বৃহস্পতিবার ভোরে সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ এলাকা থেকে নাটোরগামী একটি ডিম বোঝাই একটি পিকআপ যাত্রাপথে বড়াইগ্রাম উপজেলার আগ্রাণ সুতিরপাড় এলাকায় পৌঁছালে সেটির চাকা পাংচার হয়ে যায়।

ঘটনা প্রসঙ্গে ওই পিকআপের চালক মজনু মিয়া জানান, "নাটোর যাওয়ার পথে একটি চাকা পাংচার হয়ে পিকআপটি পাশের ফিডার রোডে নেমে যায়। খবর পেয়ে বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশের একটি টিম ঘটনাস্থলে পৌঁছে গাড়িটি উদ্ধারের জন্য রেকারের ভাড়াসহ মোট ২০ হাজার টাকা দাবি করে"।

পরে তিনি মালিকের সাথে কথা বলে পুলিশকে এ টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করলে পুলিশ সদস্যরা ক্ষিপ্ত হয়ে ডিম বোঝাই পিকআপের রশিগুলো কেটে দেন। এতে রাস্তায় পড়ে ডিমগুলো নষ্ট হয়ে যায়। এসময় পিকআপে ৩৫হাজার ১শ ডিম ছিল যার মূল্য প্রায় তিন লাখ টাকা বলেও দাবি করেন মজনু। এদিকে খবর পেয়ে এলাকার মানুষ বালতি এবং অন্যান্য পাত্র নিয়ে এসে রাস্তায় পড়ে থাকা ডিম সংগ্রহ করেন। 






 

খবর পেয়ে এভাবেই রাস্তায় পড়ে থাকা ডিম সংগ্রহ করেন স্থানীয়রা। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন


এ প্রসঙ্গে হাইওয়ে পুলিশের এসপি জাহাঙ্গীর হোসেন ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "পিকআপ চালকের অভিযোগটি হাইওয়ে পুলিশের জন্য অত্যন্ত বিব্রতকর ঘটনা। ঘটনার তদন্তে ইতোমধ্যেই এক সদস্যবিশিষ্ট তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এই ঘটনায় বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশের ৬ জনকে ক্লোজড করা হয়েছে। তবে তদন্ত রিপোর্ট পাওয়ার পর ঘটনার সত্যতা পাওয়া গেলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে"।

এদিকে তাৎক্ষণিক বনপাড়া হাইওয়ে পুলিশ এই অভিযোগের সত্যতা অস্বীকার করেন। এমনকি তাদের ৬ সদস্যকে প্রত্যাহারের বিষয়টিও তাদের জানা নেই বলে দাবি করেন তারা।

এ প্রসঙ্গে বনপাড়া হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলিম হোসেন শিকদার ঢাআকা ট্রিবিউনকে জানান, ৬ পুলিশকে ক্লোজ্ড করার বিষয়টি তার জানা নেই বা এ সংক্রান্ত কোন চিঠিও তিনি পাননি।