• শুক্রবার, আগস্ট ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:০৩ বিকেল

সপ্তাহ না পেরোতেই আরেক বাংলাদেশিকে ধরে নিয়ে গেল বিএসএফ

  • প্রকাশিত ০৪:১৫ বিকেল মে ২২, ২০১৯
বিএসএফ
ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী- বিএসএফ। ফাইল ছবি। রয়টার্স

‘ওই যুবক বিএসএফ আটক করে ভারতীয় পুলিশের  হাতে দেন।তবে তাকে ফিরিয়ে আনতে পতাকা বৈঠক ডাকা হয়েছে।’

মাত্র ছয় দিনের ব্যবধানে ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার চোষপাড়া সীমান্তের ওপারে আরেক বাংলাদেশি যুবককে ধরে নিয়ে গেছে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। 

২২ মে, বুধবার ভোররাতে চোষপাড়া সীমান্তের   ৩৭৯ এর ৬-৭ সাব পিলার এলাকা থেকে তাকে ধরে নিয়ে যায় বিএসএফ।

আটক বাংলাদেশি যুবকের নাম মাহমুদ ওরফে ন্যাড়া মিস্টার (৪০)। মাহমুদ উপজেলার আমজানখোর ইউপির উত্তর চড়ইগেদী বেউরঝারী গ্রামের নিজামউদ্দিনের ছেলে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আকালু ডোঙ্গা জানান, বধুবার ভোরে চোষপাড়া সীমান্তের কলসীর মুখ এলাকা দিয়ে ভারতে অনুপ্রবেশ করে মাহমুদ। এ সময় ভারতের ১৭১-চাকলাগড় বিএসএফ ক্যাম্পের সদস্যরা তাকে আটক করে নিয়ে যায়।

তবে একটি সূত্র জানায়, ঈদ সামনে রেখে কিছুদিন ধরে সীমান্ত এলাকায় মাদক চোরাকারবারিরা সক্রিয় হয়ে উঠেছে। অভিযোগ রয়েছে,মাদক চক্রটির সঙ্গে মাহমুদও জড়িত। এরই পরিপেক্ষিতে সীমান্ত এলাকায় ফেনসিডিল আনতে গিয়ে ধরা পড়েছে সে।

ঠাকুরগাঁও-৫০ বিজিবির ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল এসএম সামিউন্নবী চৌধুরী বলেন,  “ওই যুবক বিএসএফ আটক করে ভারতীয় পুলিশের  হাতে দেন।তবে তাকে ফিরিয়ে আনতে পতাকা বৈঠক ডাকা হয়েছে।”

এর আগে গত ১৬ মে, বৃহস্পতিবার হানিফ নামে আরেক বাংলাদেশি যুবক একই এলকার জিরোলাইনে বিএসএফের হাতে ধরা পড়ে।