• শনিবার, আগস্ট ২৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪১ রাত

প্রিয় ডটকমের সাংবাদিক খুন, জামালপুরে লাশ উদ্ধার

  • প্রকাশিত ১০:০২ রাত মে ২২, ২০১৯
ফাগুন
সাংবাদিক ফাগুন ফেসবুক

প্রথমে পরিচয় না পাওয়ায় লাশের ময়না তদন্ত শেষে বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে দাফনের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

অনলাইন নিউজ পোর্টাল প্রিয় ডটকম এর সহ-সম্পাদক এহসান ইবনে মিজান ওরফে ফাগুন (২৩) অজ্ঞাত দুর্বৃত্তদের হাতে খুন হয়েছেন। 

মঙ্গলবার (২২ মে) গভীর রাতে রেলওয়ে পুলিশ জামালপুর সদর উপজেলার রানাগাছা মধ্যপাড়া রেল লাইনের পাশ থেকে তার লাশ উদ্ধার করে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে জামালপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ তাপস চন্দ্র পন্ডিত ঢাকা ট্রিবিউনকে জানান, মঙ্গলবার রাত দেড়টার দিকে স্থানীয়দের কাছ থেকে খবর পেয়ে রানাগাছা রেল

লাইনের পাশ থেকে অজ্ঞাত পরিচয়ের এক যুবককের লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। প্রথমে পরিচয় না পাওয়ায় লাশের ময়না তদন্ত শেষে বেওয়ারিশ লাশ হিসেবে দাফনের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

পরে বুধবার বিকেলে তার পরিচয় পাওয়া যায়, জানান পুলিশ কর্মকর্তা।

নিহত সাংবাদিক ফাগুনের বাবা বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল এনটিভির শেরপুর প্রতিনিধি কাকর রেজা। তিনি জানান, মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে মুঠোফোনে ছেলের সঙ্গে শেষবারের মতো তার কথা হয়। ছেলে তাকে তখন বাড়ির পথে বলে জানায়। এর পর রাতে আর বাড়ি ফেরেনি ফাগুন। 

দু'দিন বিভিন্ন জায়গায় খোঁজাখুজির পরও তার সন্ধান পাননি স্বজনরা। 

মঙ্গলবার রাতে জামালপুর সদর উপজেলার রানাগাছা থেকে রেল পুলিশের উদ্ধার করা লাশটি বুধবার বিকেলে ফাগুনের বলে সনাক্ত করা হয়।

জামালপুর রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ তাপস চন্দ্র পন্ডিত বলেন, বুধবার (২২ মে) সকালে ময়নাতদন্তের জন্য তার লাশ জামালপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়। লাশের পরিচয় না পাওয়ায় যথারীতি ময়নাতদন্ত শেষে সৎকারের জন্য আঞ্জুমান মফিদুল ইসলামকে খবর দেওয়া হলে তারা মরদেহের কফিন তৈরি করে জানাজা ও দাফনের প্রস্তুতি নিচ্ছিল। এরই মধ্যে বিকেল  ৫ টার দিকে লাশটি সম্পর্কে জানতে চাইলে জিআরপি পুলিশের পক্ষ থেকে নিহতের বাবা কাকন রেজার কাছে তার ছেলের ছবি পাঠানো হয়। ওই ছবি দেখে কাকন রেজা লাশটি তার ছেলের বলে শনাক্ত করেন।

তিনি আরও জানান, এ ঘটনায় রেলওয়ে থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে। লাশটি স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

ফাগুনের বাবা কাকন রেজা বলেন, তাদের সঙ্গে কারোর শত্রুতা নেই। কি কারণে তার ছেলেকে খুন করা হয়েছে তা তার জানা নেই।