• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৬ রাত

ধানকাটার মজুরি দিতে না পেরে ঘরের টেলিভিশন দিলেন নারী কৃষক

  • প্রকাশিত ১১:১৭ সকাল মে ২৭, ২০১৯
ধান
ধান কেটে নিয়ে বাড়ি ফিরছেন কৃষকেরা। ফাইল ছবি

স্বামী বাড়িতে না থাকায় ৪০০০ টাকা মজুরি ঠিক করে শ্রমিকদের দিয়ে ধান কাটিয়ে নেন তিনি। ঘরে নগদ টাকা না থাকায় শ্রমিকদের বলেছিলেন, ধান বিক্রি করে তাদের মজুরির টাকা শোধ করবেন।

ধান বিক্রি করতে না পেরে এবার ঘরের টেলিভিশন দিয়ে ধানকাটা শ্রমিকদের মজুরি পরিশোধ করেছেন এক নারী কৃষক। 

২৫ মে, শনিবার বগুড়ার দুপচাঁচিয়া উপজেলার তালোড়ার দেবখণ্ড গ্রামে এই ঘটনা ঘটেছে।

জানা গেছে, নিজের জমি না থাকায় বর্গা নিয়ে এক বিঘা জমিতে ধান চাষ করেছিলেন মরিয়ম বেগম। স্বামী ফজলুর রহমান বগুড়া শহরে কাঠমিস্ত্রির কাজ করেন। ধান পেকে গেছে, কিন্তু স্বামী বাড়িতে না থাকায় ৪০০০ টাকা মজুরি ঠিক করে শ্রমিকদের দিয়ে ধান কাটিয়ে নেন তিনি। ঘরে নগদ টাকা না থাকায় শ্রমিকদের বলেছিলেন, ধান বিক্রি করে তাদের মজুরির টাকা শোধ করবেন। 

শনিবার স্থানীয় তালোড়া হাটে ধান বিক্রির জন যান মরিয়ম বেগম। কিন্তু ক্রেতা ধানের ধাম খুব কম বলায় সে ধান আবার বাড়িতে ফিরিয়ে আনেন তিনি। তাই ধানকাটার মজুরি পরিশোধ করতে বাধ্য হয়েই ঘরে থাকা টেলিভিশনটা শ্রমিকদের দিয়ে দেন মরিয়ম বেগম। 

মরিয়ম বেগম বলেন, ঘরে টাকা ছিল না। বাড়িতে বিদ্যুৎ না থাকায় ব্যাটারি দিয়ে টিভি দেখা হতো। সেই টিভিটা মজুরি হিসেবে শ্রমিকদের দিয়ে দিয়েছি।