• বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

ঈদ খরচের টাকায় মন না ভরায় মাকে পিটিয়ে হত্যা

  • প্রকাশিত ১২:৪৬ দুপুর মে ২৭, ২০১৯
মৃত্যু
ছবি: প্রতীকী।

নিহতের স্বামী বাদী হয়ে ছেলের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেছেন

রাজশাহীর তানোর উপজেলায় ঈদের কেনাকাটার জন্য দেয়া টাকায় মন না ভরায় মাকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে একরামুল হক (২৮) নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে।

রবিবার (২৬ মে) দুপুরে উপজেলার মুণ্ডুমালা পৌর এলাকার গৌরাঙ্গাপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে তানোর উপজেলার মুণ্ডুমালা পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে ইনচার্জ (ওসি, তদন্ত) সাইফুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন। 

এ ঘটনায় অভিযুক্ত একরামুলের বাবা সামজাত হাজী বাদী হয়ে একরামুলকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। নিহত ওই নারীর নাম রহিমা বেগম (৭০)।

পুলিশ এবং মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, রবিবার সকালে ঈদের কেনাকাটা করতে ছোটছেলেকে ২ হাজার টাকা দেন রহিমা বেগম। পরবর্তীতে এ খবর জানতে পেরে তার অন্য দুই ছেলে আব্দুল হক (৩০) এবং মামলার আসামি একরামুল হক মায়ের কাছে প্রত্যেকের জন্য ৩ হাজার করে টাকা দাবি করেন ঈদের কেনাকাটার জন্য।

এসময় রহিমা বেগম তাদের ১ হাজার করে টাকা দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে মায়ের সাথে বাগবিতণ্ডা শুরু করে আব্দুল এবং একরামুল। এর এক পর্যায়ে একরামুল একটি মোটা লাঠি দিয়ে ঘাড়ে আঘাত করলে তৎক্ষণাৎ মাটিতে লুটিয়ে পড়েন রহিমা বেগম। পরে প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক)হাসপাতালে নেওয়ার পথেই তার মৃত্যু হয়।

মামলা প্রসঙ্গে ওসি সাইফুল ইসলাম বলেন, "এই ঘটনায় মেজো ছেলে একরামুল হককে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন নিহতের স্বামী সামজাত হাজী। ময়নাতদন্তের জন্য নিহতের লাশ রামেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। রয়েছে।রবিবার রাতে অন্য দুই ছেলেকে জিজ্ঞাসাবাদ করে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে আসামি পালাতক রয়েছে"।