• সোমবার, আগস্ট ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৬ রাত

মুন্সীগঞ্জে স্বামীর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে গৃহবধুর আত্মহত্যা চেষ্টা

  • প্রকাশিত ০৯:৫২ সকাল জুন ৯, ২০১৯
মুন্সীগঞ্জ
মুন্সীগঞ্জে স্বামীর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে গৃহবধুর আত্মহত্যা চেষ্টা

ঘটনার পর থেকে জিয়াসমিনের স্বামী পলাতক

মুন্সীগঞ্জ জেলার শ্রীনগর উপজেলায় স্বামীর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে আত্মহত্যার চেষ্টাকারী গৃহবধূ জিয়াসমিন (৪২) এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন আছে।

শুক্রবার (৭ জুন) দুপুরেউপজেলার শ্যামসিদ্ধি ইউনিয়নের সেলামতি গ্রামে স্বামীর নির্যাতন সইতে না পেরে সে নিজের গায়ে আগুন লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বলে জানা যায়। 

শ্রীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইউনুচ আলী বলেন, শনিবার (৮ জুন) রাত বারোটা পর্যন্ত শ্রীনগর থানায় কোন মামলা হয়নি বলে জানিয়েছেন ।

তিনি জানান, "আত্মহত্যার চেষ্টা গৃহবধূ জিয়াসমিন নিজেই করেছে বলে ডাক্তারের কাছে বলেছে। এ কারণে এখনো মামলা হয়নি। তাছাড়া, তার স্বজনেরা এখন তার চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত আছেন।"

ওসি আরো জানান, "ঘটনার পর থেকে জিয়াসমিনের স্বামী পলাতক আছে। শনিবার বিকালে পুলিশ সুপার মোঃ জায়েদুল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।” 

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, স্বামী সিরাজুল ইসলাম তার স্ত্রী জিয়াসমিনের উপর শারীরিক ও মানসিক নির্যাতন করতেন। নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে সে নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দেয়। প্রতিবেশীরা তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখান থেকে তাকে ঢাকায় রেফার করা হয়। জিয়াসমিন শ্রীনগর উপজেলার কোলাপাড়া ইউনিয়নের ব্রাক্ষণ পাইকসা গ্রামের মৃত আব্দুল আজীজ চৌধুরীর মেয়ে। তার এক মেয়ে ও মালয়শিয়া প্রবাসী এক ছেলে রয়েছে।