• বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০৯ রাত

প্রতিপক্ষের আগুনে দগ্ধ সাদপন্থী তাবলিগ কর্মীর মৃত্যু

  • প্রকাশিত ০৯:১৩ রাত জুন ১০, ২০১৯
সাদপন্থী তাবলিগ কর্মী আব্দুর রহিম
সাদপন্থী তাবলিগ কর্মী আব্দুর রহিম সংগৃহীত

আগুনে তার শরীরের ২৫ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

তাবলিগ জামাতের বিবাদমান সাদপন্থী ও জুবায়েরপন্থীদের দ্বন্দ্বের জেরে, জুবায়ের পন্থীদের দেওয়া আগুনে গুরুদর দগ্ধ আব্দুর রহিম (৩০) ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটিতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

সোমবার (১০ জুন) বিকেল পৌনে তিনটায় হাসপাতালের বার্ন ইউনিটের আইসিইউ-তে মারা যান তিনি। এর আগে গত ১৯ মে কিশোরগঞ্জের কটিয়াদিতে তার গায়ে আগুন ধরিয়ে দেয় প্রতিপক্ষ জুবায়েরপন্থী লোকজন।

আব্দুর রহিমের বড় ভাই ঢাকা ট্রিবিউনকে জানান, গত ১৯ মে রাতে তারাবি নামাজ শেষে মসজিদ থেকে ফেরার পথে পেছন দিক থেকে জুবায়েরপন্থী কয়েকজন রহিমের গায়ে পেট্রোল দিয়ে আগুন ধরিয়ে দেয়। পরে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেদিন রাতেই তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

তিনি আরও বলেন, আগে সবাই সাদ অনুসারী ছিল। কিন্তু বিরোধ হওয়ার পর থেকে জুবায়ের অনুসারীরা তাদের সব ধরনের কর্মকাণ্ডে বাধা দিয়ে আসছে। যার জেরেই এই ঘটনা।

প্রসঙ্গত, কিশোরগঞ্জ জেলার কটিয়াদি থানার পূর্ব পাড়ার বাসিন্দা আব্দুর রহিম। পাঁচ ভাই, দুই বোনের মধ্যে তিনি দ্বিতীয়। মামার ব্যবসা দেখাশোনার কাজ করতেন তিনি।

আগুনে তার শরীরের ২৫ শতাংশ দগ্ধ হয় বলে জানিয়েছেন বার্ন ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক ডা. পার্থ শঙ্কর পাল।

এ ঘটনায় তার মামা মামুনুর রশিদ বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেছেন। এখন পর্যন্ত দুই আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।