• সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৩৮ দুপুর

পিবিআই কর্মকর্তা সেজে ছিনতাই!

  • প্রকাশিত ০৫:৫৮ সন্ধ্যা জুন ১১, ২০১৯
পিবিআই
পিবিআই ইনসপেক্টর পরিচয়ে তিন যুবকের কাছ থেকে মোবাইলফোন সেট ও মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় জিএম বুলবুল কবির রিপন এক প্রতারককে আটক করা হয়েছে।ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

ছিনতাইয়ের সময় নিজেকে পিবিআইয়ের ইনসপেক্টর বলে দাবি করে সে

পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনের (পিবিআই) ইনসপেক্টর পরিচয়ে তিন যুবকের কাছ থেকে মোবাইলফোন সেট ও মোটরসাইকেল ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনায় জিএম বুলবুল কবির রিপন (৪০) নামে এক প্রতারককে আটক করা হয়েছে।

সোমবার (১০ জুন) পিবিআই যশোরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমকেএইচ জাহাঙ্গীর হোসেন এ তথ্য দেন।

তিনি জানান, “গত ৮ মে সকালে যশোর সদরের খোলাডাঙ্গা এলাকার হানিফ আলীর ছেলে জিএম বুলবুল কবির রিপনসহ কয়েকজন  বেনাপোল থানার ছোটআঁচড়া মোড় থেকে শাকিবুল ইসলাম (১৮), তার বন্ধু ফিরোজ খান ওরফে শরৎ (১৮) এবং সাজুকে (১৮) ভয়ভীতি দেখিয়ে তাদের কাছ থেকে একটি মোটরসাইকেল ও দুটি মোবাইলফোন সেট হাতিয়ে নেন। তিনি ওইসময় নিজেকে পিবিআইয়ের ইনসপেক্টর দাবি করেন এবং মালামাল ফেরত পেতে প্রত্যেককে ৫ হাজার করে টাকা দিতে বলেন।”

তিনি জানান, “এ ঘটনার পর ফিরোজ খানের মামা আবু মুসা তার (রিপন) বিকাশ অ্যাকাউন্টে চার হাজার টাকা দিলে মোটরসাইকেল ও একটি মোবাইলফোন সেট ফিরিয়ে দেওয়া হয়। কিন্তু অপর যুবক শাকিবুল টাকা দিতে না পারায় তার ফোন সেট ফেরত দেয়নি। শাকিবুল বাড়ি ফিরে বিষয়টি তার বাবাকে জানালে তিনি ভুয়া ইনসপেক্টরকে ফোন দেন। ্এরপর অভিযুক্ত রিপন তাকে ১০ জুন সকালে যশোর কালেক্টরেট চত্বরে ৫ হাজার টাকা নিয়ে আসতে বলেন।”

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এমকেএইচ জাহাঙ্গীর হোসেন বলেন, “সকালে টাকা নিয়ে ঘটনাস্থলে এলে তাদের সঙ্গে রিপনের তর্ক-বিতর্ক হয়। একপর্যায়ে সেখানে থাকা লোকজন রিপনকে আটকে রেখে পিবিআইকে খবর দেয়। পিবিআই ইনসপেক্টর আব্দুল মান্নান ঘটনাস্থলে গিয়ে তার পরিচয় জানতে চাইলে তিনি নিজের পরিচয় দেন এবং দোষ স্বীকার করেন।” 

এ ঘটনায় শাকিবুলের বাবা সাজ্জাদুল ইসলাম বাদি হয়ে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন।তাকে কোতোয়ালি থানায় সোপর্দ করা হয়।