• শুক্রবার, এপ্রিল ০৩, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৭ রাত

সিইসি: আগামী সকল নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করা হবে

  • প্রকাশিত ০৮:৪৬ রাত জুন ১৯, ২০১৯
সিইসি
বুধবার (১৯ জুন) বগুড়া সদর আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে বগুড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিইসি। ছবি: সংগৃহীত

সিইসি বলেন, "বগুড়ায় নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রয়েছে। তাই সেনা সদস্য মোতায়েন করা হবে না"

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন, বগুড়ার শূন্য আসনের উপ নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট গ্রহণের পর আগামী সব নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হবে।

তিনি আরও বলেন "স্থানীয় সরকার নির্বাচনে যতটুকু সম্ভব ইভিএমের মাধ্যমে ভোটগ্রহণ করা হবে, পরে ভবিষ্যতে সকল নির্বাচনই ইভিএমে হবে। এ জন্য আইনগত কাঠামো তৈরি করা হয়েছে।"

বুধবার (১৯ জুন) বগুড়া সদর আসনের উপ-নির্বাচন উপলক্ষে বগুড়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত আইন-শৃঙ্খলা বিষয়ক এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে সিইসি এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠিতব্য এ নির্বাচনে সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে না জানিয়ে সিইসি বলেন, "বগুড়ায় নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ বজায় রয়েছে। তাই সেনা সদস্য মোতায়েন করা হবে না।"

"তবে বুথগুলোতে ইভিএমের কারিগরি ব্যক্তি হিসেবে সেনা সদস্যরা থাকবেন। তারা নির্বাচনের দায়িত্ব পালন করবেন না, শুধু ইভিএমে কোনো সমস্যা হলে তারা দেখবেন," যোগ করেন তিনি।

রাজশাহী বিভাগীয় কমিশনার নূর উর রহমানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় নির্বাচন কমিশন সচিব মো. আলমগীর হোসেন, বগুড়ার জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ, পুলিশ সুপার আলী আশরাফ ভূঞাসহ র‌্যাব, বিজিবি, আনসারের স্থানীয় কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর শপথ না নেয়ায় শূন্য হওয়া বগুড়া-৬ (সদর) আসনে আগামী ২৪ জুন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫টা পর্যন্ত ভোট গ্রহণ করা হবে।

নির্বাচন কমিশনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ওই নির্বাচনে ইভিএমের মাধ্যমে ভোট গ্রহণ করা হবে। এজন্য নির্বাচনী দায়িত্বপ্রাপ্ত সব কর্মকর্তাকে এরই মধ্যে প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। এমনকি প্রতিটি ভোট কেন্দ্রে ভোটারদেরও ইভিএমে ভোট প্রদান পদ্ধতি সম্পর্কে ধারণা দেয়া হয়েছে।

এছাড়া ২২ জুন প্রতিটি কেন্দ্রে ইভিএমে পরীক্ষামূলক ভোট গ্রহণ করা হবে। নির্বাচনে ৩ লাখ ৮৭ হাজার ৪৫৮ জন ভোটারের জন্য ১৪১টি কেন্দ্রে ভোট গ্রহণ করা হবে।

নির্বাচনে আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাতীয় পার্টিসহ পাঁচটি রাজনৈতিক দল এবং দুই স্বতন্ত্র প্রার্থী মিলে মোট ৭ জন প্রতিদ্বন্দ্বীতা করছেন।