• শনিবার, জানুয়ারী ১৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২০ রাত

ভাগ্নে উদ্ধার, ফেসবুক লাইভে এসে যা বললেন সোহেল তাজ

  • প্রকাশিত ০১:৩৪ দুপুর জুন ২০, ২০১৯
সোহেল তাজ
ভাগ্নেকে ফেরত পাওয়ার খবরে ফেসবুক লাইভে এসে প্রতিক্রিয়া জানান সোহেল তাজ।

`সৌরভকে যখন পাওয়া যায় তখন তার হাত-পা বাঁধা ছিল। গায়ে কোনও জামা ছিল না, শুধু পায়জামা পরা ছিল। তার চোখ বাঁধা ছিল। ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার তাকে বাসায় নিয়ে গোসলের ব্যবস্থা করেন এবং কিছু খাবার দেন। উদ্ধারের পর সৌরভ বুঝেই উঠতে পারেনি সে কোথায়।'

সাবেক স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী সোহেল তাজ বলেছেন, ১১ দিন নিখোঁজ থাকার পর আজ বৃহস্পতিবার ভোরে উদ্ধার করার সময় তার ভাগ্নে ইফতেখার আলম সৌরভের অবস্থা ভালো ছিল না এবং সে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত।

২০ জুন, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টার দিকে ফেসবুক লাইভে এবং নিজের বাসায় সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি এই কথা জানান।

সোহেল তাজ বলেন, “সৌরভকে যখন পাওয়া যায় তখন তার হাত-পা বাঁধা ছিল। গায়ে কোনও জামা ছিল না, শুধু পায়জামা পরা ছিল। তার চোখ বাঁধা ছিল। ময়মনসিংহের পুলিশ সুপার তাকে বাসায় নিয়ে গোসলের ব্যবস্থা করেন এবং কিছু খাবার দেন। উদ্ধারের পর সৌরভ বুঝেই উঠতে পারেনি সে কোথায়।”

সৌরভের সঙ্গে মোবাইলে কথা বলার বিষয়টি জানিয়ে সোহেল তাজ বলেন, “সে মানসিকভাবে একেবারে বিপর্যস্ত। এখন তাকে চাপমুক্ত রাখতে চাই। আমরা তাকে একটু স্বস্তিতে রাখতে চাই। সৌরভ আভাসে ইঙ্গিতে কিছুটা জানিয়েছে, সে কী পরিস্থিতিতে ছিল। তবে এখন তার ওপর কোনও চাপ দেওয়া যাবে না। আমরা তার অপেক্ষায় আছি।”

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার ভোরে ময়মনসিংহ থেকে সৌরভকে উদ্ধার করা হয়। তিনি সোহেল তাজের মামাতো বোনের ছেলে। গত ৯ জুন সন্ধ্যায় চট্টগ্রাম নগরীর পাঁচলাইশ থানাধীন আফমি প্লাজার সামনে থেকে সৌরভকে অপহরণের অভিযোগ করেন তার পরিবারের সদস্যরা। তাদের দাবি, সৌরভকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে পরিকল্পিতভাবে অপহরণ করা হয়। এ ঘটনায় পরদিন ১০ জুন পাঁচলাইশ থানায় নিখোঁজ ডায়েরি দায়ের করেন সৌরভের বাবা। সৌরভের পরিবার চট্টগ্রামের পাঁচলাইশ থানার সুন্নিয়া মাদ্রাসা এলাকার বাসিন্দা।