• সোমবার, আগস্ট ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৫৩ বিকেল

বাল্যবিয়ে দেওয়ার অপরাধে বর ও কনের বাবার কারাদণ্ড

  • প্রকাশিত ০৫:১৮ সন্ধ্যা জুন ২১, ২০১৯
বাল্যবিয়ে সৈয়দপুর
ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন

ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাদের সাজা দেওয়া হয়।

তেরো বছর বয়সী মেয়েকে বিশ বছর বয়সী ছেলের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হচ্ছিল জোর করে। খবর পেয়ে বিয়ের অনুষ্ঠান বন্ধ করেন নীলফামারীর সৈয়দপুর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার।

বৃহস্পতিবার (২০ জুন) রাতে শহরের ক্যান্টবাজার সংলগ্ন সৈয়দপুর সেনানিবাসের গ্যারিসন অডিটরিয়ামে এ বিয়ের অনুষ্ঠান হচ্ছিল। এ অপরাধে বর ও কনের বাবাকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের সাজা দেয় ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, মাস ছয়েক আগেই তাদের বিয়ে সম্পন্ন হয়। বৃহস্পতিবার সেনানিবাসের গ্যারিসন অডিটরিয়ামে তাদের বিবাহোত্তর অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছিল।

খবর পেয়ে উপজেলা সহকারী কমিশনার পরিমল কুমার সরকার, মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা নুরুন্নাহার শাহজাদী এবং উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রবিউল আলম ঘটনাস্থলে গিয়ে ছেলে-মেয়ের বয়স প্রমাণের জন্য প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দেখতে চান।

তবে উভয়পক্ষই উপযুক্ত প্রমাণ উপস্থিত করতে ব্যর্থ হলে বর-কনেসহ স্বজনদের উপজেলা এসিল্যান্ড কার্যালয়ে নিয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে বর ও কনের বাবাকে বাল্য বিয়েদেওয়ার অপরাধে ১৫ দিনের করে বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়। তবে ছেড়ে দেওয়া হয় ছেলে ও মেয়েকে। ঘটনাটি শহরজুড়ে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করেছে।