• শুক্রবার, ফেব্রুয়ারি ২৮, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০২ রাত

রেলমন্ত্রী: দুর্বল নাটবল্টুর কারণে এ দুর্ঘটনা ঘটতে পারে

  • প্রকাশিত ০২:২৯ দুপুর জুন ২৬, ২০১৯
রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন
বুধবার কুলাউড়ার বরমচালে রেল দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন ঢাকা ট্রিবিউন

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এ দুর্ঘটনার জন্য রেল মন্ত্রণালয়কে ব্যর্থ বলা যাবে না।

ুলাউড়ায় আন্তঃনগর ‘উপবন এক্সপ্রেস’ ট্রেনের দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে রেলমন্ত্রী মো. নুরুল ইসলাম সুজন বলেছেন, কোনো দুর্ঘটনাই আমাদের কাম্য নয়। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমরা এখানে এসেছি। ব্রিজ ভেঙে নয়, দূর্বল লাইন কিংবা নাট বল্টুর কারণে এ দুর্ঘটনার ঘটতে পারে। তদন্ত কমিটি বিষয়টি খতিয়ে দেখবে। 

বুধবারা (২৬ জুন) দুপুরে মৌলভীবাজার জেলার কুলাউড়া বরমচাল রেল স্টেশনের কাছে আন্তঃনগর ‘উপবন এক্সপ্রেস’ ট্রেনের দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে এসব কথা বলেন মন্ত্রী।

তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত জোটের সময় রেল বিভাগের উন্নয়ন হয়নি। আমাদের সরকারের আমলে আলাদা মন্ত্রণালয় হয়েছে। দৃশ্যমান নানা উন্নয়ন হয়েছে ও হচ্ছে।

এসময় স্থানীয়দের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে বরমচাল স্টেশনে দুটি আন্তনগর ট্রেন স্টপেজ করার আশ্বাস দেন তিনি। 

ঢাকা সিলেট রেল লাইন ডুয়েল গেজ হবে উল্লেখ করে মন্ত্রী জানান, এই প্রকল্প হাতে নেওয়া হয়েছে।

এসময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী বলেন, এ দুর্ঘটনার জন্য রেল মন্ত্রণালয়কে ব্যর্থ বলা যাবে না। অতিরিক্ত যাত্রী, নাট, বল্টু খোলা ও কারিগরি ক্রটি ছিল কিনা এ বিষয় খতিয়ে দেখতে দুটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত কমিটির রিপোর্ট না আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। কেউ দায়ী থাকলে তার বিরুদ্ধে অবশ্যই ব্যবস্থা নেবে রেল বিভাগ।

মন্ত্রী আরও বলেন, প্রত্যেক আহতকে ১০ হাজার ও নিহতকে ১ লক্ষ টাকা দেওয়া হবে। এছাড়া জেলা প্রশাসনও আর্থিক সহায়তা করবে। 

এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. তোফায়েল ইসলাম, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যন আজিজুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সারয়ার আলম, রেলওয়ের প্রধান প্রকৌশলী, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, জন প্রতিনিধি ও আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ। একই সময়ে পরিবেশ বন ও জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রী মো. শাহাব উদ্দিন প্রমুখ।