• শনিবার, আগস্ট ২৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৫ রাত

এখন থেকে ভ্যাট দিতে হবে ফেসবুক-ইউটিউব-গুগলকে

  • প্রকাশিত ০২:৪৮ দুপুর জুন ২৬, ২০১৯
সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম
ছবি: সংগৃহীত

এনবিআরের বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, টুইটারসহ  ইউটিউব ও  গুগল ভ্যাট নিবন্ধন ছাড়া বাংলাদেশে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবে না। সেক্ষেত্রে এসব কোম্পানিকে হয় বাংলাদেশে  অফিস স্থাপন করতে হবে, অথবা মূসক এজেন্ট নিয়োগ দিতে হবে।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, টুইটারসহ জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউব ও অনুসন্ধান ইঞ্জিন গুগলকে ভ্যাট নিবন্ধনের নির্দেশ দিয়েছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড- এনবিআর। 

২৬ জুন, বুধবার সরকারের এই সংস্থাটি এ সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ফেসবুক, টুইটারসহ জনপ্রিয় ভিডিও শেয়ারিং সাইট ইউটিউব ও অনুসন্ধান ইঞ্জিন গুগলকে মূসক এজেন্ট নিয়োগ দিতে হবে। নিবন্ধন এসব প্রতিষ্ঠানের নামে হলেও মূসক এজেন্টরা ওইসব প্রতিষ্ঠানের (ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব, গুগল ইত্যাদি) হয়ে ব্যবসা পরিচালনা করবে। খবর বাংলা ট্রিবিউনের। 

আগামী ১ জুলাই থেকে দেশে নতুন ভ্যাট আইন বাস্তবায়ন হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে,  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক, টুইটারসহ  ইউটিউব ও  গুগল ভ্যাট নিবন্ধন ছাড়া বাংলাদেশে ব্যবসা পরিচালনা করতে পারবে না। সেক্ষেত্রে এসব কোম্পানিকে হয় বাংলাদেশে  অফিস স্থাপন করতে হবে, অথবা মূসক এজেন্ট নিয়োগ দিতে হবে। এই এজেন্টরা ব্যবসা পরিচালনা বাবদ বাংলাদেশ সরকারকে রাজস্ব প্রদান করবে।

এ বিষয়ে জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) কর্মকর্তারা  বলছেন, ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউব বা গুগলের মতো জনপ্রিয় মাধ্যম থেকে এখন তেমন ভ্যাট পাওয়া যায় না। কারণ, এসব প্রতিষ্ঠানের মূসক নিবন্ধন নেই। এজন্য এসব প্রতিষ্ঠানকে  মূসক এজেন্ট নিয়োগ দিতে হবে। নিবন্ধন এসব প্রতিষ্ঠানের নামে হলেও মূসক এজেন্ট ওই প্রতিষ্ঠানের হয়ে ব্যবসা পরিচালনা করবে।

এনবিআর সূত্র জানায়, নতুন ‘মূল্য সংযোজন কর ও সম্পূরক শুল্ক আইন, ২০১২’ আইনের ১৯ ধারা অনুযায়ী ফেসবুক, ইউটিউব, গুগলের মতো প্রতিষ্ঠানকে মূসক নিবন্ধন নিতে হবে। সেক্ষেত্রে বাংলাদেশে অফিস স্থাপন অথবা মূসক এজেন্ট নিয়োগ দিতে হবে।