• মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ১০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৫ রাত

ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ার একমাসেও জ্ঞান ফেরেনি ছাত্রীর

  • প্রকাশিত ০৪:২০ বিকেল জুন ২৭, ২০১৯
ইনজেকশন
ছবি : এএফপি

‘এখনও আইসিইউতে অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছে মুন্নি, তবে আরও কতদিন লাগবে সুস্থ হতে এ বিষয়ে চিকিৎসকরা কিছু বলতে পারেনি’

গোপালগঞ্জ বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেমুরবিপ্রবি)  সমাজবিজ্ঞান বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী মরিয়ম সুলতানা মুন্নিকে ভুল ইঞ্জেকশন দেওয়ার একমাস পরেও জ্ঞান ফেরেনি। 

গত ২০ মে গোপালগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভুল ইনজেকশন দেয়ায় অজ্ঞান হয়ে পড়েন ওই শিক্ষার্থী। এরপর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। তবে ভর্তির একমাস পার হয়ে গেলেও মুন্নির জ্ঞান ফেরেনি। 

মুন্নির বড় ভাই হাসিবুল রুবেল বলেন, “এখনও আইসিইউতে অজ্ঞান অবস্থায় রয়েছে মুন্নি। চিকিৎসক বলেছেন সময় লাগবে সুস্থ হয়ে উঠতে। তবে আরও কতদিন লাগবে সুস্থ হতে এ বিষয়ে চিকিৎসকরা কিছু বলতে পারেনি।”

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. খোন্দকার নাসিরউদ্দিন বলেন, “সার্বক্ষণিক মুন্নির বিষয়ে খোঁজ রাখা হচ্ছে। তার পরিবারকে দুই লাখ টাকা দেওয়া হয়েছে চিকিৎসার জন্য এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রয়োজনে আরও টাকা দেওয়া হবে।”

এ ঘটনায় দায়েরকৃত মামলা প্রসঙ্গে গোপালগঞ্জ সদর থানার ওসি মোঃ মনিরুল ইসলাম বলেন, “অভিযুক্তরা হাইকোর্ট থেকে ৮ সপ্তাহের আগাম জামিন নিয়েছেন। তাই অভিযুক্ত দু’ নার্সকে গ্রেফতার করা হয়নি।”