• রবিবার, ডিসেম্বর ১৫, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৭ রাত

আবারো বাড়ছে গ্যাসের দাম

  • প্রকাশিত ০৪:০৫ বিকেল জুন ৩০, ২০১৯
গ্যাস
ছবি: সংগৃহীত

২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে গ্যাসের দাম গড়ে ২২ দশমিক ৭০ শতাংশ বাড়ানো হয়, পরবর্তীতে জুলাই মাসে তা স্থগিত করা হয়

বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) আবারও গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিচ্ছে।

রবিবার (৩০ জুন) বিকাল ৪টায় এক সংবাদ সম্মেলনে এ ঘোষণা দেওয়া হবে। নাম প্রকাশ না করে কমিশনের একজন সদস্য এ তথ্য নিশ্চিত করেন বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বাংলা ট্রিবিউন।

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে,  গ্যাসের দাম কতভাগ বাড়বে, তা নির্ভর করছে সরকারের ভর্তুকি দেওয়ার ওপর। সরকার এ খাতে যত বেশি ভর্তুকি দেবে, গ্যাসের দাম ততই কম বাড়বে।

প্রতিবেদনটিতে আরো বলা হয়েছে, চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি মাসে গ্যাস বিতরণ কোম্পানিগুলো কমিশনের কাছে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দেয়। কোম্পানিগুলো গ্যাসের দাম গড়ে ১০২ ভাগ বাড়ানোর প্রস্তাব করে। এরপর মার্চে কমিশনের গণশুনানির ৯০ দিনের মধ্যে দামের বিষয়ে ঘোষণা দেওয়ার নিয়ম থাকায় সেই অনুযায়ীই বিকালে গ্যাসের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দিতে যাচ্ছে কমিশন।

বিতরণ কোম্পানিগুলোর মতে, সরকার জ্বালানি চাহিদা মেটাতে এলএনজি আমদানি করছে। যা এলএনজির প্রতি হাজার ঘনফুটের মূল্য ১০ ডলার বা ৮২০ টাকা। অপর দিকে দেশী উৎপাদিত গ্যাসের দাম প্রতিহাজার ঘনফুট গ্যাসের দাম ১২ টাকা ১৯ পয়সা। যা সরকার বেশি দামে কিনে কম দামে গ্রাহকের কাছে বিক্রি করবে, ফলে জ্বালানি খাতে বিশাল ঘাটতি তৈরি হবে। এতে করে জ্বালানি খাতে বিশাল ঘাটতি তৈরি হবে। যে কারণে গ্যাসের দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দিয়েছে কোম্পানিগুলো। 

সর্বশেষ ২০১৭ সালের ফেব্রুয়ারিতে গ্যাসের দাম গড়ে ২২ দশমিক ৭০ শতাংশ বাড়ানো হয়। ওই বছরের মার্চ ও জুলাই থেকে দুই ধাপে তা কার্যকর করার কথা থাকলেও মার্চে দাম কার্যকর হয়। পরবর্তীতে হাইকোর্টের আদেশে জুলাই মাসে এটি স্থগিত করা হয়।