• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৭ রাত

প্রিপেইড মিটার বসাতে গিয়ে নারীদের ধাওয়ায় পালালেন বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজন

  • প্রকাশিত ১০:৩৫ রাত জুলাই ১, ২০১৯
প্রিপেইড মিটার

এ সময় তাদের হাতে ঝাঁটা, লাঠি ও ইট-পাটকেল ছিল।

সাতক্ষীরার রসুলপুরে প্রিপেইড মিটার বসাতে গিয়ে ক্ষুব্ধ জনতার ধাওয়া খেয়ে পালিয়েছেন বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মচারীরা। আজ সোমবার দুপুরে রসুলপুরের মেহেদিবাগ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। 

জানা গেছে, মেহেদিবাগ এলাকার একটি বাড়িতে প্রিপেইড মিটার বসাতে গেলে বিদ্যুৎ বিভাগের কর্মচারীরা নারীদের বাধার সম্মুখীন হন। এ সময় বিদ্যুৎ বিভাগের লোকজনের সঙ্গে সাতক্ষীরা পৌরসভার প্যানেল মেয়র ফারাহ দীবা খান সাথী, শফিক উদ-দৌলা সাগর এবং পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। 

বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের আবাসিক প্রকৌশলী হাবিবুর রহমান জানান, কয়েকদিন আগে প্রিপেইড মিটার লাগাতে গিয়ে বাধা পেয়ে ফিরে আসা হয়। আজ নতুন করে দুই জন পৌর কাউন্সিলর ও পুলিশকে নিয়ে একই স্থানে মিটার বসাতে গেলে গ্রামের নারীরা একজোট হয়ে তাদের ধাওয়া করেন। এ সময় তাদের হাতে ঝাঁটা, লাঠি ও ইট-পাটকেল ছিল।

নারীদের অভিযোগ, প্রিপেইড মিটারে অনেক টাকা কেটে নিচ্ছে। কোন খাতে কেন এবং কতো টাকা কাটা হবে তার কোনো হিসাব নেই। এমন অস্বচ্ছ অবস্থায় তারা প্রিপেইড মিটার নিতে রাজি না। 

আবাসিক প্রকৌশলী আরও বলেন, পৌর কাউন্সিলরদের অনুরোধও শোনেনি নারীরা। এ সময় সার্কিট হাউস বকচরা মোড়ে তুমুল হট্টগোল হয়। বাধ্য বিভাগের কর্মচারীরা ফিরে আসে।