• শনিবার, নভেম্বর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩২ রাত

ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে উদ্যোগ সফল করতে প্রধানমন্ত্রীর ৫ দফা প্রস্তাব

  • প্রকাশিত ০৯:৩৯ রাত জুলাই ২, ২০১৯
প্রধানমন্ত্রী
ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের আলোচনা সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ফোকাস বাংলা

`আমরা কখনো কখনো শুধুমাত্র কিছু বড় অর্থনীতির সক্ষমতা ও প্রয়োজন দেখে থাকি। কিন্তু আমাদের যৌথ যাত্রা ও টেকসই বিশ্বের জন্য আমাদের অবশ্যই ছোট গোষ্ঠী বা তুলনামূলক দুর্বল অর্থনীতিগুলোর মূল উদ্বেগগুলো সমাধান করতে হবে।'

ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে কোনো উদ্যোগকে সফল করার জন্য পাঁচ দফা প্রস্তাব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। যার মধ্যে রয়েছে এ অঞ্চলের সব দেশকে প্রতিদ্বন্দ্বিতা থেকে সরে থেকে শান্তি ও সুষ্ঠু প্রতিযোগিতার পরিবেশ তৈরি করা।

২ জুলাই, মঙ্গলবার চীনের লিয়াওনিং প্রদেশের বন্দরনগরী দালিয়ানে চলমান ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের (ডব্লিউইএফ) ‘অ্যানুয়াল মিটিং অব দ্য নিউ চ্যাম্পিয়ন্স ২০১৯’ শীর্ষক সম্মেলনের প্যানেল আলোচনায় প্রধানমন্ত্রী এ প্রস্তাব তুলে ধরেন।

দালিয়ান আন্তর্জাতিক কনফারেন্স সেন্টারে ‘লিডারশিপ ৪.০- সাকসিডিং ইন এ নিউ এরা অব গ্লোবালাইজেশন’ প্রতিপাদ্য নিয়ে ১ থেকে ৩ জুলাই তিন দিনব্যাপী ডব্লিওইএফের বার্ষিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এ সম্মেলন ‘ডব্লিউইএফ সামার দাভোস’ হিসেবেও পরিচিত।

শেখ হাসিনা বলেন, রাজনীতিতে পাঁচ দশকের অধিক সময়ের যাত্রা থেকে তিনি জেনেছেন যে ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে যে কোনো উদ্যোগে থাকতে হবে সব দেশের শান্তি-ঐকতান-স্থিতিশীলতার পরিবেশ সৃষ্টি, টেকসই উন্নয়নের সমুদয় দিকে নজর দেওয়া, দেশগুলোর অভিন্ন স্বার্থে পারস্পরিক বিশ্বাস ও সম্মানের ভিত্তিতে সংযুক্ত হওয়া, সবার জন্য সম্পদ সৃষ্টিতে নজর দেওয়া ও উন্নয়ন অন্তর্ভুক্তিমূলক হওয়া এবং প্রতিদ্বন্দ্বিতা নয়, সুষ্ঠু প্রতিযোগিতার পরিবেশ সৃষ্টি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, “আমরা কখনো কখনো শুধুমাত্র কিছু বড় অর্থনীতির সক্ষমতা ও প্রয়োজন দেখে থাকি। কিন্তু আমাদের যৌথ যাত্রা ও টেকসই বিশ্বের জন্য আমাদের অবশ্যই ছোট গোষ্ঠী বা তুলনামূলক দুর্বল অর্থনীতিগুলোর মূল উদ্বেগগুলো সমাধান করতে হবে।”

তিনি জানান, এটা ব্যাপকভাবে স্বীকৃত যে ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় এলাকা বিশ্বের সবচেয়ে গতিশীল অঞ্চল। আর ১৫০ কোটি মানুষের বঙ্গোপসাগরীয় এলাকা সমানভাবে সমৃদ্ধশালী ও বর্ধিষ্ণু এক অঞ্চল।

বঙ্গোপসাগরের আশপাশের মানুষদের উন্নতি ও বিকশিত হওয়ার বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

দ্বিপাক্ষিক বিষয় নিয়ে আলাপকালে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশ আপসে মিয়ানমার ও ভারতের সাথে সমুদ্রসীমা বিরোধ নিষ্পত্তি করেছে।