• শুক্রবার, ডিসেম্বর ০৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:১৮ দুপুর

কসবায় আইনমন্ত্রী: বিএনপি আমলে তারা আদালতকে পকেটে রাখতেন

  • প্রকাশিত ০১:০১ দুপুর জুলাই ৫, ২০১৯
আইনমন্ত্রী আনিসুল হক
আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। ফাইল ছবি।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন আদালতের রায়ে। তাকে সেবা করার জন্য ফাতেমা নামের এক গৃহকর্মী বিনা দোষে কারাবরণ করছেন। তারপরও তারা আইনের শাসন নিয়ে কথা বলছেন

ইশ্বরদীতে শেখ হাসিনার ট্রেনে হামলার প্রসঙ্গে আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক বলেন, দীর্ঘ ২২ বছর পর এই মামলার রায় দেওয়া হয়েছে। মামলার সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতেই বিচারিক আদালত এই রায় দিয়েছেন । তাই ফরমায়েশি রায়ের প্রশ্ন ওঠে না।

শুক্রবার (৫ জুলাই) ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কসবা উপজেলা সদরে নবনির্মিত চারতলা বিশিষ্ট উপজেলা পরিষদ ভবন উদ্বোধনকালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন। প্রায় ৪ কোটি ১০ লাখ টাকা ব্যয়ে ৪তলা বিশিষ্ট উপজেলা পরিষদ প্রশাসন ভবনটি নির্মাণ করা হয়।

আইনমন্ত্রী আরো বলেন, হামলার ঘটনার পর ১৯৯৫ সালের বিএনপির সময়ে মামলার তদন্ত কাজ শুরু হয়ে তদন্ত শেষে ১৯৯৮ সালে বিচার কাজ শুরু হয়। বিএনপি’র আমলে তারা আদালতকে পকেটে রাখতেন। এজন্যই এই রায় নিয়ে আবোল-তাবোল বলছেন।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়া কারাগারে আছেন আদালতের রায়ে। তাকে সেবা করার জন্য ফাতেমা নামক এক গৃহকর্মী বিনা দোষে কারাবরণ করছেন। তারপরও তারা আইনের শাসন নিয়ে কথা বলছেন।

এসময় তার সাথে ছিলেন, কসবা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান রাশেদুল কাওসার ভূইয়া জীবন, কসবা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মাসুদউল আলম, কসবা পৌরসভার মেয়র এমরান উদ্দিন জুয়েল, উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক এমজি হাক্কানী, রহুল আমীন ভূইয়া বকুলসহ আওয়ামীলীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা।