• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০১ রাত

বান্ধবীর নগ্ন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে কলেজছাত্রী গ্রেফতার

  • প্রকাশিত ০৬:০৬ সন্ধ্যা জুলাই ৬, ২০১৯
গ্রেফতার
প্রতীকী ছবি।

শনিবার সকালে তাকে গ্রেফতার করা হয়

সাতক্ষীরার ঝাউডাঙ্গা কলেজের প্রথম বর্ষের এক কলেজছাত্রীর নগ্ন ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগে তার বান্ধবী রিনি খাতুনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এর আগে ভুক্তভোগীর পিতা এ ঘটনায় শুক্রবার রাতে সদর থানায় রিনি খাতুনের নামে একটি অভিযোগ দায়ের করেন বলে নিশ্চিত করেছেন সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুস্তাফিজুর রহমান। অভিযোগের প্রেক্ষিতে শনিবার সকালে সদর উপজেলার রামেরডাঙ্গা গ্রাম থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। রিনি খাতুন সদর উপজেলার রামেরডাঙ্গা গ্রামের আব্দুর রকিবের মেয়ে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, সম্প্রতি ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীকে বিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় তার পরিবার। এর অংশ হিসেবে ওই ছাত্রীকে দেখতে আসে পাত্রপক্ষ। ওইদিন বান্ধবীকে সাজসজ্জায় সহযোগিতা করার সময় কৌশলে তার নগ্ন ছবি মোবাইলে ধারণ করে অভিযুক্ত রিনি খাতুন।

পরবর্তীতে এইসব ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দিয়ে কয়েকদফায় ভুক্তভোগীর নিকট থেকে টাকা আদায় করে রিনি। তবে, এরপরও মোটা অংকের টাকা দাবি করে রিনি। ওইটাকা দিতে ব্যর্থ হলে গোপনে তোলা বান্ধবীর ছবিগুলো ফেসবুকে পোস্ট করে সে।

এদিকে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসব ছবি ছড়িয়ে পড়ায় আত্মহত্যার চেষ্টা চালায় ওই শিক্ষার্থী। বর্তমানে সে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা আশঙ্কামুক্ত বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা। পরে ভুক্তভোগীর পিতা সব জানতে পেরে রিনির বিরুদ্ধে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার ওসি মুস্তাফিজুর রহমান এপ্রসঙ্গে বলেন, "বান্ধবীকে ব্ল্যাকমেইল করে টাকা আদায় করছিল অভিযুক্ত রিনি খাতুন। এক পর্যায়ে মোটা অংকের টাকা দাবি করে সে। সেটা দিতে ব্যর্থ হলে বান্ধবীর নগ্ন ছবি ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয় সে। শুক্রবার এঘটনায় সদর থানায় রিনি খাতুনের নামে একটি অভিযোগ দায়ের করেন ওই ছাত্রীর বাবা। এরপ্রেক্ষিতে রিনি খাতুনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।"