• বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:১৮ রাত

সিলেটে ২০ দম্পতির যৌতুকবিহীন গণবিয়ে

  • প্রকাশিত ০৯:৩৯ সকাল জুলাই ৭, ২০১৯
গণবিয়ে
সিলেটের কানাইঘাটে ২০ দম্পতির যৌতুকবিহীন গণবিয়ে অনুষ্ঠিত হয়। ছবি: সংগৃহীত

ইসলাহুল মুসলিমীন পরিষদ-বাংলাদেশের উদ্যোগে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে নবদম্পতিদের সাবলম্বী হওয়ার জন্য একটি করে সেলাই মেশিন, একটি ছাগল, বর ও কনের বিয়ের কাপড়-চোপড় ও গৃহস্থালীর জন্য আরো কিছু সামগ্রী প্রদান করা হয়

সিলেটের কানাইঘাটে ২০ দম্পতির যৌতুকবিহীন গণবিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৬ জুলাই) জেলার রাউতগ্রাম মাদানীনগরে বড়চতুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হোসাইন চতুলীর বাড়িতে এবিবাহ সম্পন্ন হয়।

ইসলাহুল মুসলিমীন পরিষদ-বাংলাদেশের উদ্যোগে আয়োজিত এ অনুষ্ঠানে নবদম্পতিদের সাবলম্বী হওয়ার জন্য একটি করে সেলাই মেশিন, একটি ছাগল, বর ও কনের বিয়ের কাপড়-চোপড় ও গৃহস্থালীর জন্য আরো কিছু সামগ্রী প্রদান করা হয়।

এনিয়ে সংগঠনটির পক্ষ থেকে চতুর্থবারের মতো গণবিবাহ আয়োজন করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন বড়চতুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাওলানা আবুল হোসাইন চতুলী।

তিনি জানান, ‘অনেক অভিভাবক আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে তাদের বিয়েযোগ্য পুত্র-কন্যাদের পাত্রস্থ করতে পারেন না। এসব অসহায় পাত্র-পাত্রীদের জন্যই মূলত তাদের এ আয়োজন। আগামীতেও তা অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

এদিকে, নব দম্পতিদের পরিবার যৌতুকবিহীন বিয়ে ও সংসার সাজানোর জিনিসপত্র পেয়ে আনন্দে কেঁদে ফেলেন বলে জানান প্রত্যক্ষদর্শীরা। তারা আয়োজকদের প্রতি কৃতজ্ঞতাও জানান।

গণবিবাহ অনুষ্ঠানে বর-কনেসহ আগত অতিথিদের আপ্যায়নও করানো হয়। অনুষ্ঠানে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল মুমিন চৌধুরী, কানাইঘাট সার্কেলের সিনিয়র এএসপি আব্দুল করিমসহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক ও জনপ্রতিনিধিরাও উপস্থিত ছিলেন।