• বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৭ রাত

বিয়ের দাবিতে বাড়িতে তরুণী, পালালেন প্রেমিক

  • প্রকাশিত ০৮:৩৭ রাত জুলাই ৯, ২০১৯
সাতক্ষীরা
সাতক্ষীরার মানচিত্র

‘আবু সাঈদের পরিবার আমাকে টাকা দিয়ে সব মিটমাট করতে চায়। কিন্তু আমি বলেছি টাকা দিয়ে প্রেম ভালোবাসা বেচাকেনা করা যায় না।’

সদর উপজেলার আগরদাঁড়িতে স্ত্রীর দাবি নিয়ে প্রেমিকের বাড়িতে অবস্থান করছেন এক তরুণী।

৯ জুলাই, মঙ্গলবার সকাল থেকে প্রেমিকা বাড়িতে অবস্থান করলেও প্রেমিক আবু সাঈদ বাড়ি থেকে পালিয়েছেন।

স্থানীয় ইউপি সদস্য আমিনা খাতুন বলেন, “বাঁশঘাটা গ্রামের ওই তরুণী ও রেজাউল বকসের ছেলে আবু সাঈদের মধ্যে টানা ছয় বছর ধরে প্রেম চলছিল। তাকে বিয়ে করবে বলে আবু সাঈদ তার সাথে শারীরিকভাবে মেলামেশাও করে বলে দাবি মেয়েটির।”

তরুণীর বরাত দিয়ে ইউপি সদস্য আরও জানান, মেয়ের বাবা তাকে অন্য কোথাও বিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করলে আবু সাঈদ গিয়ে তা ভেঙে দিত।

স্থানীয়রা জানান, দিন চারেক আগে ওই তরুণী প্রেমিক আবু সাঈদকে বিয়ের জন্য চাপ দিতে তার বাড়িতে যান। কিন্তু সাঈদের বাড়ির লোকজন তাকে কৌশলে বাড়ি সংলগ্ন রাস্তায় ঠেলে পাঠায়। পরে সেখানেই দুপুর পর্যন্ত থাকার পর তাকে বলে কয়ে বাড়িতে পাঠানো হয়।

ওই তরুণী জানান, তিনি এইচএসসি পাস করার পর ঢাকায় একটি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। তার আগে গ্রামের ইটভাটার ম্যানেজার আবু সাঈদ তাকে তার সাথে প্রেমের সম্পর্কে জড়াতে বাধ্য করে। পরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে দৈহিকভাবে ব্যবহার করেছেন বলেও দাবি করেন তিনি।

এদিকে প্রেমিকা বাড়িতে আসার খবর পেয়ে পালিয়েছেন প্রেমিক আবু সাঈদ।

ওই তরুণী বলেন, “আবু সাঈদের পরিবার আমাকে টাকা দিয়ে সব মিটমাট করতে চায়। কিন্তু আমি বলেছি টাকা দিয়ে প্রেম ভালোবাসা বেচাকেনা করা যায় না।”

মঙ্গলবার সকাল থেকে ফের আবু সাঈদের বাড়িতে অবস্থান নেওয়া ওই তরুণী জানান, এখন তিনি তার বাবা-মার কাছে আশ্রয় পাচ্ছেন না। আবার প্রেমিক আবু সাঈদ পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। আর তার মা ও বোন তাকে মারধর করে বের দিয়েছে। এখন তিনি কি করবেন, কোথায় যাবেন বুঝতে পারছেন না।