• রবিবার, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩২ রাত

জিএম কাদের: এরশাদ টাই বাঁধতে শিখিয়েছেন, রাজনৈতিক শিক্ষাও দিয়েছেন

  • প্রকাশিত ১০:৫৩ রাত জুলাই ১৭, ২০১৯
এরশাদ
রাজধানীর গুলশানের আজাদ মসজিদে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কুলখানি অনুষ্ঠিত হয়। ছবি: সংগৃহীত

‘আজকে খেলার যে অর্জন, তার বীজ বপন করেছেন তিনি। সরকারকে ধন্যবাদ জানাই তার বীজটাকে লালন করার জন্য। আওয়ামী লীগ গ্রামকে শহর করার কথা বলছে। এর গোড়াপত্তন করে এরশাদ উপজেলা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।’

রাজনীতিতে সংকট মোকাবিলা করে কীভাবে পরিবেশ ট্যাকেল দিতে হয়, তা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ তা শিখিয়েছেন বলে জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির (জাপা) ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের।

তিনি বলেন, “এরশাদ আমাকে টাই বাঁধতে শিখিয়েছেন, রাজনৈতিক শিক্ষাও দিয়েছেন।”

১৭ জুলাই, বুধবার বিকেলে রাজধানীর গুলশানের আজাদ মসজিদে প্রয়াত রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের কুলখানিতে তিনি এসব কথা বলেন।

এরশাদের মৃত্যুতে মাথার ওপর থেকে ছাতা সরে গেছে মন্তব্য করে জিএম কাদের বলেন, “আমার মাথার ওপরের বটগাছটি আর নেই। এরশাদ শুধু আমার ভাই ছিলেন না, বাবার মতো শিক্ষকও ছিলেন।”

এরশাদকে বাংলাদেশ ক্রীড়া শিক্ষা প্রতিষ্ঠান (বিকেএসপি)-এর প্রতিষ্ঠাতা দাবি করে জিএম কাদের বলেন, “আজকে খেলার যে অর্জন, তার বীজ বপন করেছেন তিনি। সরকারকে ধন্যবাদ জানাই তার বীজটাকে লালন করার জন্য। আওয়ামী লীগ গ্রামকে শহর করার কথা বলছে। এর গোড়াপত্তন করে এরশাদ উপজেলা প্রতিষ্ঠা করেছিলেন।”

রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে জি এম কাদের বলেন, “আমার ভাই যখন হাসপাতালে, তখন প্রতি ঘণ্টায় তারা খোঁজ-খবর নিয়েছেন। সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের ডাক্তাররা রাতদিন তাকে নিজেদের বাবার মতো করে সেবা দিয়েছেন।”

এরশাদের কুলখানিতে আরও উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য তোফায়েল আহমেদ, সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম, সাবেক আওয়ামী লীগ নেতা নুরে আলম সিদ্দিকী, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী, জাতীয় পার্টির প্রেসিডিয়াম সদস্য ব্যারিস্টার আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, রুহুল আমিন হাওলাদার, মসিউর রহমান রাঙ্গা, এরশাদের দুই ছেলে এরিখ এরশাদ ও সাদ এরশাদ।