• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৮ রাত

গোপালগঞ্জে নিখোঁজের ৭ মাস পরও উদ্ধার হয়নি এনজিও কর্মকর্তা

  • প্রকাশিত ০১:৪৬ দুপুর জুলাই ২১, ২০১৯
নিখোঁজ
নিখোঁজের সাতমাস পরও এনজিও কর্মকর্তা রাইচরণ বিশ্বাসের (৪০) সন্ধান মেলেনি ঢাকা ট্রিবিউন

তিনি গতবছরের ২৩ ডিসেম্বর মোটরসাইকেলে সাপ্তাহিক কিস্তি আদায়ের জন্য সকালে অফিস থেকে বের হন। এরপর থেকে তাকে আর পাওয়া যায়নি

গোপালগঞ্জে নিখোঁজের সাতমাস পরও এনজিও কর্মকর্তা রাইচরণ বিশ্বাসের (৪০) সন্ধান মেলেনি।

গত ৮ জুলাই দুপুরে মুকসুদপুর উপজেলার ডাঙ্গাদুর্গাপুর গ্রামের একটি পুকুর থেকে রাইচরণের ব্যবহৃত মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করেছে পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ (সিআইডি)। এঘটনায় দায়ের করা মামলায় বক্কার চৌকিদার নামে একজনকে আটক করেছে সিআইডি।

নিখোঁজ রাইচরণ গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলার ভৈরবনগর গ্রামের বিশ্বনাথ বিশ্বাসের ছেলে। তিনি মুকসুদপুর উপজেলা সদরের বেসরকারি উন্নয়ন সংস্থা আশার সিনিয়র লোন অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, রাইচরণ বিশ্বাস গত বছরের ২৩ ডিসেম্বর মোটরসাইকেলে মুকসুদপুর উপজেলার গোবিন্দপুর ইউনিয়নের ফুলারপাড় এলাকায় সাপ্তাহিক কিস্তি আদায়ের জন্য সকাল ৮টার দিকে অফিস থেকে বের হন। এরপর থেকে তাকে আর পাওয়া যায়নি। এসময় তার সঙ্গে মোবাইল ফোন, মোটরসাইকেল ও অফিসের কাগজপত্র ছিল।

নিখোঁজের সাড়ে ছয়মাসের মাথায় গত ৮ জুলাই(সোমবার) দুপুরে মুকসুদপুর উপজেলার ডাঙ্গাদুর্গাপুর গ্রামের একটি পুকুরে জেলেদের জালে আটকে পড়ে একটি মোটরসাইকেল। খবর পেয়ে রাতেই মোটরসাইকেলটি উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে সিআইডি।

সিআইডি’র ক্যাম্প ইনচার্জ পরিদর্শক এসএম ইফতেখারুল আলম বলেন, “তদন্তে ঘটনার কিছুটা অগ্রগতি হয়েছে। এনজিও কর্মকর্তার মোটরসাইকেল উদ্ধার করা হয়েছে। দ্রুতই আমরা এঘটনার রহস্য ভেদ করতে পারবো।"