• বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:০০ বিকেল

গৃহপরিচারিকাকে ভয় দেখিয়ে বছরের পর বছর ধর্ষণ, বৃদ্ধ গ্রেপ্তার

  • প্রকাশিত ০২:৪৫ দুপুর জুলাই ২৩, ২০১৯
সালাহউদ্দীন
নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা গৃহপরিচারিকাকে ধর্ষণের অভিযোগে সালাহউদ্দীন নামের এক বৃদ্ধকে সোমবার গ্রেপ্তার করে পুলিশ। ছবি : ঢাকা ট্রিবিউন

ডাক্তারি পরীক্ষায় কিশোরীর সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা উপজেলায় ১৩ বছর বয়সী এক গৃহপরিচারিকাকে বছরের পর বছর ধর্ষণের অভিযোগে সালাহউদ্দীন (৬৮) নামের এক বৃদ্ধকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

গতকাল সোমবার রাতে উপজেলার চাষাঢ়া এলাকা থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়। সালাহউদ্দিন ওই এলাকার শেখ ফজর আলীর ছেলে। 

এঘটনায় সোমবার দিবাগত রাতে ভুক্তভোগী কিশোরী বাদি হয়ে ফতুল্লা থানায় একটি মামলা দায়ের করে। 

ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন ঢাকা ট্রিবিউনকে এতথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

মামলা সূত্রে জানা যায়, পারিবারিক অসচ্ছলতার কারণে ১০ বছর বয়সেই নানির সঙ্গে নারায়ণগঞ্জে চাকরির জন্য যায় ওই কিশোরী। তাকে সালাউদ্দিনের বাসায় গৃহচালিকার কাজে দিয়ে গ্রামে চলে যান নানি। এরপর থেকে তিনবছর ধরে নানা প্রলোভনে গৃহকর্তা সালাউদ্দিন কিশোরীকে ধর্ষণ করতেন। ধর্ষণের পর ভয় দেখানোর কারণে সে এতদিন কাউকে কিছু জানায়নি। 

জানা গেছে, কয়েকদিন আগে ওই কিশোরী তার শারীরিক সমস্যার কথা সালাউদ্দিনের স্ত্রী ও মেয়েকে জানায়। পরে তাকে চিকিৎসকের কাছে নেওয়া হয়। সে সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা বলে নিশ্চিত করেন চিকিৎসক। পরে সোমবার তার গর্ভপাতের চেষ্টা করা হলে বিষয়টি প্রতিবেশীরা জানতে পারে। তারা থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করে। 

ওসি আসলাম হোসেন জানান, ডাক্তারি পরীক্ষায় কিশোরীর সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে মঙ্গলবার সকালে আদালতে পাঠানো হয়েছে।