• রবিবার, মার্চ ২৯, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:২৯ সন্ধ্যা

মাদ্রাসাছাত্রকে বলাৎকারের পর হত্যা, মোহতামিম গ্রেপ্তার

  • প্রকাশিত ০৫:১৮ সন্ধ্যা জুলাই ২৭, ২০১৯
বলৎকার
চুয়াডাঙ্গায় মাদ্রাসাছাত্রকে বলৎকারের পর গলা কেটে হত্যা মামলায় মাদ্রাসার মুহতামিম আবু হানিফ ও সহকারি শিক্ষক তামিমেদাড়িকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ছবি : ঢাকা ট্রিবিউন

বুধবার সকালে মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্র আবির হোসাইনের লাশ উদ্ধার করা হয়।

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলায় মাদ্রাসাছাত্রকে বলৎকারের পর গলা কেটে হত্যা মামলায় মাদ্রাসার মুহতামিম আবু হানিফ ও সহকারী শিক্ষক তামিমেদাড়িকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

শনিবার (২৭ জুলাই) তামিমেদাড়ি ও গত শুক্রবার সন্ধ্যায় আবু হানিফকে গ্রেপ্তার করা হয়।

আলমডাঙ্গা থানার ওসি (তদন্ত) মাহবুবুর রহমান জানান, গত বুধবার সকালে কয়রাডাঙ্গা নুরানী হাফেজিয়া ও এতিমখানা মাদ্রাসার পাশের আমবাগান থেকে ওই মাদ্রাসার দ্বিতীয় শ্রেণীর ছাত্র আবির হোসাইনের লাশ উদ্ধার করা হয়। মাথাবিহীন লাশটি উদ্ধার করার পর মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক আবু হানিফ ও সহকারি শিক্ষক তামিমেদাড়িসহ পাঁচজন শিক্ষককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। 

তাদের জিজ্ঞাসাবাদের পর মুহতামিম আবু হানিফ হত্যাকাণ্ডের বিষয় স্বীকার করলে তাকে শুক্রবার সন্ধ্যায় ও সহকারী শিক্ষক তামিমেদাড়িকে শনিবার সকালে গ্রেপ্তার দেখিয়ে পাঁচ দিনের রিমান্ড চেয়ে দুপুরে চুয়াডাঙ্গা আদালতে পাঠানো হয়। 

পুলিশের এই কর্মকর্তা আরও জানান, এ ঘটনায় আরও কয়েকজন জড়িত থাকতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অন্যদেরকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনা হবে।