• বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৮ রাত

‘রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী ছাড়া কেউ ভিআইপি নয়’ আদেশের পর ভিআইপি প্রোটোকল চাইলেন বিচারপতি!

  • প্রকাশিত ১২:৪১ দুপুর আগস্ট ২, ২০১৯
গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকার- লোগো

বিচারপতির সফর সরকারি কিনা জানতে চাইলে জেলা প্রশাসক বলেন, ‘এটি বিচারপতির ব্যক্তিগত সফর।’

গ্রামের বাড়িতে যাওয়ার জন্য সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি শশাঙ্ক শেখর সরকারের জন্য খুলনার জেলা প্রশাসকের (ডিসি) কাছে ভিআইপি প্রোটোকল চাওয়া হয়েছে।

১ আগস্ট, বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (প্রটোকল) মো. আব্দুছ সালাম খুলনার ডিসির কাছে চিঠি দিয়ে এ প্রটোকল চেয়েছেন। খবর বাংলা ট্রিবিউনের। 

ভিআইপি প্রটোকলের জন্য দেরিতে ফেরি ছাড়ায় শিশুমৃত্যুর অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে দেশের ‘রাষ্ট্রপতি এবং প্রধানমন্ত্রী ছাড়া আর কেউ ভিআইপি নয়’ হাইকোর্টের এমন আদেশের পর ভিআইপি প্রটোকল চাওয়া হলো।

গত ২৫ জুলাই মাদারীপুরের কাঁঠালবাড়ি ফেরিঘাটে যুগ্ম সচিবের অপেক্ষায় প্রায় ৩ ঘণ্টা ফেরি না ছাড়ায় দুর্ঘটনায় আহত স্কুলছাত্র তিতাস ঘোষের মৃত্যু ঘটে বলে জোরালো অভিযোগ উঠেছে। এ ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে হাইকোর্ট বুধবার (৩১ জুলাই) বলেন, রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী ছাড়া আর কেউ ভিআইপি নন।

তবে হাইকোর্টের এই আদেশের আগে থেকেই বিচারপতিরাসহ রাষ্ট্রীয় গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের ভিআইপি প্রটোকল দেওয়ার প্রচলন রয়েছে।

জানতে চাইলে সুপ্রিম কোর্টের ডেপুটি রেজিস্ট্রার (প্রটোকল) আব্দুছ সালামের সই করা প্রশাসন বিভাগের প্রটোকল চাওয়া চিঠি হাতে পেয়েছেন বলে নিশ্চিত করেন খুলনার জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন।

হাইকোর্ট বিভাগের আদেশের পর বিচারপতির এই ভিআইপি প্রোটোকল চাওয়ার প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, “হাইকোর্ট বিভাগের সম্প্রতি দেওয়া আদেশের বিষয়টি আমি মিডিয়ার মাধ্যমে জেনেছি। অফিসিয়াল কোনো আদেশ বা চিঠি পাইনি। আগের নিয়ম অনুযায়ী প্রটোকল চাওয়া হয়েছে। চিঠিটি আমি হাতে পেয়েছি।”

তিনি বলেন, “আগামী ১৫ আগস্ট শোক দিবসে খুলনায় অবস্থানের জন্য খুলনা সার্কিট হাউজে একটি ভিআইপি কক্ষ এবং বিচারপতির বাড়িতে যাওয়ার জন্য একটি ভিআইপি গাড়ি চাওয়া হয়েছে।”

বিচারপতির সফর সরকারি কিনা জানতে চাইলে জেলা প্রশাসক বলেন, “এটি বিচারপতির ব্যক্তিগত সফর।”

ভিআইপি প্রটোকল চাওয়ার চিঠি অনুযায়ী, সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি শশাঙ্ক শেখর সরকার তার ঢাকার সেগুনবাগিচার ‘নকশি ইব্রাহিম’ বাসভবন থেকে আগামী ১৪ জুলাই খুলনার উদ্দেশে রওনা হবেন।

সফরসূচি অনুযায়ী পরদিন ১৫ আগস্ট শোক দিবসে তার গ্রামের বাড়ি দাকোপ উপজেলার গড়খালী গ্রামে যাবেন।

খুলনার জেলা প্রশাসকের কাছে ভিআইপি প্রটোকল চাওয়া ওই চিঠিতে বিচারপতি শশাঙ্ক শেখর সরকারের অবস্থানের জন্য খুলনা সার্কিট হাউজে একটি ভিআইপি কক্ষ এবং দাকোপ উপজেলায় যাতায়াতের জন্য প্রয়োজনীয় জ্বালানি ও ড্রাইভারসহ ফ্ল্যাগযুক্ত িএকটি ভিআইপি গাড়ি বরাদ্দ চাওয়া হয়েছে। এ ছাড়া নিরাপত্তার জন্য পুলিশ এসকর্টের বিষয়ে প্রয়োজনীয় নেওয়ার অনুরোধ করা হয়েছে।