• শুক্রবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩১ রাত

নির্মাণের আগেই ভেঙে পড়লো ব্রিজের গার্ডার

  • প্রকাশিত ০৯:৫৪ রাত আগস্ট ৪, ২০১৯
ভেঙে পড়া ব্রিজের গার্ডার
ঝিনাইদহ শহরের ধোপাঘাটা এলাকায় নির্মাণের আগেই সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীনে ১২০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত ব্রীজের দুইটি গার্ডার ভেঙ্গে পড়ে। ঢাকা ট্রিবিউন

সরেজমিনে দেখা যায়, ব্রিজের কাজে ব্যবহৃত পাইপ ও সার্টারগুলো দীর্ঘদিনের পুরোনো ও মরিচা ধরা।

ঝিনাইদহ শহরের ধোপাঘাটা এলাকায় নির্মাণের আগেই সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীন ১২০ কোটি টাকা ব্যয়ে নির্মিত  ব্রিজের দুটি বৃহৎ আকারের গার্ডার ভেঙে পড়েছে। রোববার (৪ আগস্ট) দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

ঝিনাইদহ সড়ক ও জনপথ বিভাগের একটি সুত্র জানায়, জাইকার অর্থয়নে মনিকো লিমিটেড নামের একটি প্রতিষ্ঠান পিডব্লিউ-০৩ প্যাকেজের আওতায়  ব্রিজটি নির্মাণ করছে। বিগত দেড় বছর ধরে পাইলিং ও মাটি ভরাটের কাজ শেষে এখন ব্রীজের দুই পাশে গার্ডার দেওয়ার কাজ চলছিল। 

সরেজমিনে দেখা যায়, ব্রিজের কাজে ব্যবহৃত পাইপ ও সার্টারগুলো দীর্ঘদিনের পুরোনো ও মরিচা ধরা। একারণে প্রায় দেড়শ টন ওজনের দুইটি গার্ডারের ভর সইতে না পারায় গার্ডার দুইটি পড়ে গেছে। ব্রিজটির নির্মাণ কাজে ত্রুটি থাকার কারণেই এই দুর্ঘটনা ঘটেছে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা।

মনিকো লিমিটেডের ম্যানেজার ওলিউর রহমান জুয়েল দুর্ঘটনা কারণ প্রসঙ্গে ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "জগ দিয়ে গার্ডার স্থানান্তরিত করার সময় অসাবধানতাবশত প্রায় ১০০ ফুট দৈর্ঘ্যের গার্ডার দুটি ভেঙে পড়ে। এতে প্রায় ৫০ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে। তবে, এসময় শ্রমিকরা দুপুরের খাবার খাওয়ার জন্য ব্রিজের আশেপাশে না থাকায় বড় কোনো ক্ষতি হয়নি।"

সাইট ইঞ্জিনিয়ার শাহাদত হোসেন বলেন, "বিষয়টি পুরোপুরি না জেনে এখনই কিছু বলা যাবে না। তবে নিশ্চয় কাজে কোনো ত্রুটি ছিল।"

তবে, এ বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে গণমাধ্যমকর্মীদের এড়িয়ে যান প্রজেক্ট ম্যানেজার আব্দুস সালাম।