• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০২:৫৫ দুপুর

বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবি, আরো পাঁচ জেলে উদ্ধার

  • প্রকাশিত ০৭:৫১ রাত আগস্ট ৬, ২০১৯
ট্রলারডুবি
ছবি: প্রতীকী।

ডুবে যাওয়া ট্রলারের পাঁচ জেলেকে একটি রিং বয়া ধরে সাগরে ভাসতে দেখে উদ্ধার করেন পটুয়াখালীর আলীপুরের আব্দুল মজিদের মালিকানাধীন এফবি মজিদ নামের ট্রলারের জেলেরা

১৫ জেলেকে নিয়ে বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবির ঘটনায় আরো পাঁচজনকে উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে ছয় জেলেকে উদ্ধার করা হয়েছে। আর এ ঘটনায় এখনও ১০ জেলে নিখোঁজ রয়েছেন। মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) বিকালে নিখোঁজ ট্রলারের মালিক আনোয়ার হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

উদ্ধার হওয়া পাঁচ জেলে হলেন– আনোয়ার হোসেন মাঝি, ইউসুফ মিয়া, আলমগীর হোসেন, মো. হেলাল ও সেলিম মিয়া। উদ্ধার হওয়া ও নিখোঁজ জেলেদের সবার বাড়িই নোয়াখালী জেলায়। খবর বাংলা ট্রিবিউনের। 

উদ্ধার হওয়া জেলেদের বরাতে ট্রলার মালিক আনোয়ার হোসেন বলেন, “ডুবে যাওয়া ট্রলারের পাঁচ জেলেকে একটি রিং বয়া ধরে সাগরে ভাসতে দেখে উদ্ধার করেন পটুয়াখালীর আলীপুরের আব্দুল মজিদের মালিকানাধীন এফবি মজিদ নামের ট্রলারের জেলেরা। শারীরিকভাবে দুর্বল হওয়ায় স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে পাঁচ জেলেকে চিকিৎসা দিয়ে বরগুনার পাথরঘাটা নিয়ে আসা হয়।”

বাংলাদেশ ফিশিং বোট ফেডারেশনের সভাপতি গোলাম মোস্তফা চৌধুরী বলেন, “এফবি জাকিয়া ট্রলারের ছয় জেলে জীবিত উদ্ধার হয়েছেন। বাকিদের উদ্ধারে এফবি মনোয়ারা ও এফবি নিল সাগর নামের দুটি ট্রলার গভীর সমুদ্রে এখনও রয়েছে। তাদের সঙ্গে সার্বক্ষণিক যোগাযোগ করা হচ্ছে। জেলেদের উদ্ধারে আমরা সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছি।”

উল্লেখ্য, গত রবিবার (৪ আগস্ট) বিকালে বঙ্গোপসাগরে হঠাৎ ঝড়ের কবলে পড়ে এফবি জাকারিয়া নামের একটি ট্রলার ডুবে ১৬ জন জেলে নিখোঁজ হন।