• সোমবার, জানুয়ারী ২০, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৫ রাত

এক শাড়ির দুইপ্রান্তে ঝুলছিল নবদম্পতির লাশ!

  • প্রকাশিত ১০:০৮ রাত আগস্ট ২১, ২০১৯
আত্মহত্যা
প্রতীকী ছবি

ছেলের বাড়ি থেকে বিয়েটি মেনে নিলেও মেয়ের বাড়ি থেকে মেনে নেয়নি। যা নিয়ে তারা মনোকষ্টে ভুগছিলেন

মাগুরায় এক শাড়িতে গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেছেন এক নবদম্পতি। 

মঙ্গলবার (২০ আগস্ট) সন্ধ্যায় সদর উপজেলার রাঘবদাইড় গ্রামে নীরব বিশ্বাসের বাড়ি থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করে পুলিশ। নিহতরা হলেন- নীরব বিশ্বাস (২০) ও তার স্ত্রী শ্রাবণী বিশ্বাস (১৮)।

মাগুরা সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সাইফুল ইসলাম জানান, রাঘবদাইড় গ্রামের রবীন্দ্রনাথ বিশ্বাসের ছেলে নীরব বিশ্বাস ও শালিখা উপজেলার ধনেশ্বরগাতী গ্রামের বিশ্বজিৎ বিশ্বাসের মেয়ে শ্রাবণী বিশ্বাসের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। আনুমানিক ২৫ দিন আগে তারা নিজেরাই বিয়ে করেন। বিয়ের পর থেকে ছেলের বাড়িতে অবস্থান করছিল শ্রাবণী। ছেলের বাড়ি থেকে বিয়েটি মেনে নিলেও মেয়ের বাড়ি থেকে মেনে নেয়নি। যা নিয়ে তারা মনোকষ্টে ভুগছিলেন। 

মঙ্গলবার বিকেল ৫টার দিকে নিজেদের শোবার ঘরে বাঁশের আড়ার সঙ্গে স্ত্রী শ্রাবনী বিশ্বাসের শাড়ি বেঁধে তার দুই প্রান্তে স্বামী-স্ত্রী দু’জন গলায় ফাঁস নিয়ে আত্মহত্যা করেন। এসময় বাড়িতে কেউ ছিল না। সন্ধ্যা ৬টার দিকে বাড়ির লোকজন টেরে পেয়ে দরজা ভেঙে তাদেরকে উদ্ধার করে পুলিশকে খবর দেন।

সাইফুল ইসলাম বলেন, “লাশ দুটি ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। এবিষয়ে মাগুরা সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।”