• রবিবার, ডিসেম্বর ০৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৩২ রাত

পুলিশ হেফাজতে আসামির মৃত্যুর অভিযোগ

  • প্রকাশিত ১১:০৩ রাত আগস্ট ২৫, ২০১৯
মৃত্যু
ছবি: প্রতীকী।

পুলিশ জানায়, থানায় নেওয়ার পর বিকেল ৫টার দিকে তার বুকে ব্যথা শুরু হয়

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে বাবুল মিয়া (৫৫) নামে এক ব্যক্তির পুলিশ হেফাজতে মৃত্যু হয়েছে। 

রবিবার (২৫ আগস্ট) দুপুরে পুলিশের হাতে গ্রেফতার হওয়ার পর সন্ধ্যার দিকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। নিহত বাবুল মিয়ার বাড়ি নাসিরনগর উপজেলার পূর্বভাগ ইউনিয়নের কৈয়ারপুর গ্রামে।

বাবুলের ভাতিজা সাহাব উদ্দিন বলেন, "নাসিরনগর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই)শামীমসহ সাদা পোশাকে দু'জন পুলিশ আমাদের গ্রামে আসে। পরে আমার চাচা বাবুল মিয়াকে ধরে নিয়ে স্থানীয় একটি চায়ের দোকানে বসিয়ে রাখেন। এসময় এলাকার লোকজন আমার চাচার নামে কোন মামলা আছে কিনা জানতে চাইলে এসআই শামীম কোনো উত্তর দিতে পারেননি। উনি থানায় গিয়ে খোঁজ করতে বলেন। পরে থানায় গেলে আমাদের কাছে মোটা অংকের টাকা দাবি করা হয়। এসব নিয়ে কথা চলাকালীন সময়ের মধ্যেই আমার চাচা মারা যান।" 

এদিকে নাসিরনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মো: কবীর হোসেন জানান, বাবুলের নামে বিজয়নগর থানায় ডাকাতি প্রস্তুতির একটি মামলা ছিল। ওই মামলায় সে পলাতক ছিল। পরে আদালত তার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। এর প্রেক্ষিতে রবিবার তাকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। থানায় নেওয়ার পর বিকেল ৫টার দিকে তার বুকে ব্যথা শুরু হয়। এরপর হঠাৎ করেই তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। পরে তাকে আশংকাজনক অবস্থায় উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার কিছুক্ষণ পর কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। 

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. আলমগীর হোসেন এপ্রসঙ্গে ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, পুলিশ হেফাজতে তার মৃত্যুর ঘটনা গুরুত্বের সঙ্গে তদন্ত করা হচ্ছে। পুলিশের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ আসলে তদন্ত করে পরবর্তী ব্যবস্থা নেয়া হবে।"