• বুধবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৭ রাত

দ্বিতীয় বিয়ের পর প্রথম স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যা

  • প্রকাশিত ০৬:০৯ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ১, ২০১৯
স্ত্রীকে হত্যা
প্রতীকী ছবি।

২য় বিয়ের প্রতিবাদ করতে গেলে পান্নাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন তার স্বামী  

মাগুরা সদর উপজেলার গাংনি গ্রামে দ্বিতীয়বার বিয়ে করা নিয়ে কলহের জেরে স্ত্রীকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে সাহেব মোল্ল্যা নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। শনিবার (৩১ আগস্ট) রাতে এই ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন মাগুরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সাইফুল ইসলাম।

নিহত গৃহবধূর নাম পান্না খাতুন (৪৫)। তার পরিবার সূত্রে জানা যায়, ২০ বছর আগে সোহেব মোল্ল্যার সাথে বিয়ে হয় পান্না খাতুনের। সম্প্রতি সাহেব তার স্ত্রীকে না জানিয়ে গোপনে ২য় বিয়ে করেন। শনিবার এ বিষয়ে জানতে পেরে প্রতিবাদ করেন পান্না। এসময় স্বামীর সাথে বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন তিনি। বাগবিতণ্ডার এক পর্যায়ে তাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করেন স্বামী সাহেব মোল্ল্যা। পরে ওই গৃহবধূকে মাগুরা সদর হাসপাতালে নেয়া হলে জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মশিউর রহমান তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ প্রসঙ্গে সদর থানার ওসি সাইফুল ইসলাম ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "শনিবার রাত ১২ টার দিকে নিহতের পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে খবর পেয়ে পান্না খাতুনের লাশ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়। এজাহারের ভিত্তিতে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।"

এদিকে ঘটনার পর থেকেই অভিযুক্ত সাহেবের পরিবারের সদস্যরা পলাতক রয়েছেন বলেও জানিয়েছেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।