• মঙ্গলবার, মার্চ ৩১, ২০২০
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:২৭ দুপুর

লাইসেন্সবিহীন বাজারজাতকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর হচ্ছে বিএসটিআই

  • প্রকাশিত ০৫:২৬ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ৩, ২০১৯
বিএসটিআই

বৈধ লাইসেন্সের বাইরে যেসব প্রতিষ্ঠান রয়েছে সেসব প্রতিষ্ঠান চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে

বাধ্যতামূলক ১ শ’ ৮১ টি পণ্যের লাইসেন্স না নিয়ে বাজারজাতকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার ঘোষণা দিয়েছে পণ্যের মান নির্ধারণকারী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ স্ট্যান্ডার্ডস এন্ড টেস্টিং ইন্সটিটিউশনের (বিএসটিআই)।

মঙ্গলবার (৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর তেজগাঁওয়ে বিএসটিআই’র প্রধান কার্যালয়ে বাংলাদেশ স্টিল ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যাসোসিয়েশনের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় বিএসটিআই মহাপরিচালক এ ঘোষণা দিয়েছেন বলে জানিয়েছে বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থা।

বিএসটিআই মহাপরিচালক বলেন, বৈধ লাইসেন্সের বাইরে যেসব প্রতিষ্ঠান রয়েছে সেসব প্রতিষ্ঠান চিহ্নিত করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে।

তিনি জানান, গত জানুয়ারি থেকে জুলাই পর্যন্ত ৬ মাসে বিএসটিআই থেকে ২ হাজার ৬ শ’ ১৪টি লাইসেন্স প্রদান বা নবায়ন করা হয়েছে। একই সময়ে ১ হাজার ৩৭৬ টি মোবাইল কোর্ট বা সার্ভিল্যান্স টিম পরিচালনা করা হয়। পাশাপাশি খোলাবাজার থেকে ১ হাজার ৮ শ’ ৯৬টি নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবরেটরিতে পরীক্ষা করা হয়। এ সময়ে ৭ শ’ ৪৩ টি অবৈধ প্রতিষ্ঠান চিহ্নিত এবং তাদের বিরুদ্ধে মামলা এবং ২ কোটি ৮৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মতবিনিময় সভায় বাংলাদেশ স্টিল ম্যানুফ্যাকচারার্স এসোসিয়েশনের সেক্রেটারি জেনারেল মুহাম্মদ শহিদউল্লাহ, সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও এসএসআরএম গ্রুপের ব্যবস্থপনা পরিচালক শেখ মাসুদুল আলম মাসুদ, সংগঠনের এক্সিকিউটিভ ডিরেকটর মো. শামসুল আলম খান জিপিএইচ গ্রুপের পরিচালক মোহাম্মদ আশরাফুজ্জমান, আরআরএম গ্রুপের চেয়্যারম্যান সুমন চৌধুরী, বিএসআরএম গ্রুপের উপ-ব্যবস্থাপক মুহাম্মদ আবুল মনসুর উপস্থিত ছিলেন।

সভায় সংগঠনের নেতারা রড উৎপাদনকারী অবৈধ কোম্পানির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি জানালে বিএসটিআই মহাপরিচালক তাদেরকে সে বিষয়ে আশ্বস্ত করেন। তিনি মানসম্মত পণ্য উৎপাদন এবং বাজারজাতকরণের জন্য ব্যবসায়ীদের প্রতি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, দেশকে ২০৪১ সালের মধ্যে উন্নত দেশের কাতারে নিতে হলে কোনোকিছুকেই বিচ্ছিন্নভাবে চিন্তা করার সুযোগ নেই। সরকারের পাশাপাশি বিএসটিআই, উৎপাদনকারী, আমদানিকারক সবাইকে একযোগে কাজ করতে হবে।