• বুধবার, নভেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:৩৭ বিকেল

অস্ত্রসহ আটক মিয়ানমারের চার সীমান্তরক্ষীকে হস্তান্তর করলো বাংলাদেশ

  • প্রকাশিত ০৩:৪০ বিকেল সেপ্টেম্বর ৪, ২০১৯
বিজিপি
অস্ত্রসহ আটক মিয়ানমার সীমান্তরক্ষী বাহিনীর চার সদস্যকে হস্তান্তর করেছে বিজিবি ঢাকা ট্রিবিউন

টেকনাফের নাজিরপাড়া সংলগ্ন নাফ নদীর তীর সীমান্ত থেকে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাঘুরির সময় তাদেরকে আটক করেছিলেন বিজিবি সদস্যরা

কক্সবাজারের টেকনাফে মিয়ানমার সীমান্ত থেকে অস্ত্রসহ আটক দেশটির বর্ডার গার্ড পুলিশের (বিজিপি) চার সদস্যকে পতাকা বৈঠকের মাধ্যমে মিয়ানমারে হস্তান্তর করেছে বাংলাদেশ। বুধবার (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার ঘুমধুম সীমান্ত দিয়ে তাদের দেশে ফেরত পাঠায় বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)।

বিজিবির কক্সবাজার ৩৪ ব্যাটেলিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল আলী হায়দার আজাদ আহমেদ ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মিয়ানমারে ফেরত পাঠানো বিজিপি সদস্যরা হলেন- দেশটির রাখাইন রাজ্যের মংডুর নাগকুড়া ব্যাটালিয়নের মেগচিং ক্যাম্পের ক্যাপ্টেন লি উইন কো ম্যায়েং (৩০), সার্জেন্ট ইয়ানাং তুন (৩১), সার্জেন্ট প্যায়াং গি (২৫) ও সিপাহী ক্য ক্য (২৮)।

প্রসঙ্গত, গত ২৫ আগস্ট রাতে টেকনাফের নাজিরপাড়া সংলগ্ন নাফ নদীর তীর সীমান্ত থেকে সন্দেহজনকভাবে ঘোরাঘুরির সময় তাদেরকে আটক করেছিলেন বিজিবি সদস্যরা। তাদের সঙ্গে ছিল একটি এমএ-১১ রাইফেল, ১০টি গুলি, ১টি টর্চলাইট এবং ৫টি মোবাইল ফোন। এসবের পাশাপাশি জব্দ করা হয় বিজিপি সদস্যদের বহনকারী একটি স্পিডবোট।

বুধবার পতাকা বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এবিষয়ে ব্রিফ করেন টেকনাফ ২ নম্বর বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লেফটেন্যান্ট কর্নেল ফয়সল হাসান খান। 

তিনি বলেন, নাফ নদীর তীর সীমান্তে সন্দেহজনক ঘোরাঘুরির সময় তাদের আটকের পর ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানানো হয়। পরে দুইদেশের সীমান্তরক্ষী বাহিনীর ঊর্ধ্বতন পর্যায়ে আলাপ-আলোচনার মাধ্যমে বুধবার নাইক্ষ্যংছড়ির ঘুমধুম সীমান্ত পয়েন্ট দিয়ে তাদেরকে মিয়ানমারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।