• বুধবার, ডিসেম্বর ১১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:২৮ সকাল

ধান খাওয়ায় ৫৭টি পাখি মারলেন চাতালের মালিক

  • প্রকাশিত ০৫:১২ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ১৪, ২০১৯
পাখি হত্যা
ধান খেয়ে যাওয়ায় শনিবার সকাল থেকে ৫৭টি পাখিকে বিষ দিয়ে হত্যা করেন চাতাল মালিক মানিক হোসেন। ঢাকা ট্রিবিউন

অভিযুক্ত চাতাল মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে

লালমনিরহাটে ধান খাওয়ায় বিষ দিয়ে পাখি নিধনের অভিযোগে এক চাতাল মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত। (১৪ সেপ্টেম্বর) সকালে শহরের কুলাঘাট রোডের সিটি রাইস মিলস লিমিটেড নামক একটি প্রতিষ্ঠানের চাতালে এই ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন লালমনিরহাটের জেলা প্রশাসক আবু জাফর।

চাতালের শ্রমিক ও স্থানীয়দের সাথে কথা বলে জানা যায়, পাখিরা চাতালে শুকাতে দেওয়া ধান খেয়ে ফেলায় এবং ধান ঢাকার প্লাস্টিক ছিড়ে ফেলায় ক্ষিপ্ত হন চাতাল মালিক মানিক হোসেন। এজন্য তিনি শনিবার সকাল থেকে বিষ দিয়ে চাতালে আসা পাখিদের হত্যা করতে থাকেন। দুপুর ১টা পর্যন্ত ওই চাতালে ২৯টি বাবুই, ২৪ টি ঘুঘু, ২টি সারস, কোয়েল ১টি ও ১টি কবুতর- মোট ৫৭টি পাখি হত্যা করা হয়।

পরে মাহাবুব হাসান নামের এক যুবক মৃত পাখিগুলোকে দেখতে পেয়ে সেগুলোকে জড়ো সিটি রাইস মিল লিমিটেডের সামনে রাখেন এবং মৃত পাখিগুলোর সামনে পাখি হত্যার বিচার চেয়ে দুটি পোস্টার বসিয়ে দেন। পরে এর একটি ছবি তুলে তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পোস্ট করলে তা মুহুর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়।

এক পর্যায়ে বিষয়টি লালমনিরহাট জেলা প্রশাসকের দৃষ্টিগোচর হয়। তিনি ঘটনার তদন্ত ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে ঘটনাস্থলে অভিযান চালানোর নির্দেশ দেন। তার নির্দেশের প্রেক্ষিতে অভিযান চালিয়ে ঘটনার সত্যতা মেলে। পরে বন্যপ্রাণী (সংরক্ষণ ও নিরাপত্তা) আইন ২০১২ এর ৩৮ এর ধারা ১ মোতাবেক ৫০ হাজার টাকা, অনাদায়ে ১৫ দিনের কারাদণ্ডাদেশ দেন ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট টিএম রাহসিন কবীর।

জেলা প্রশাসক আবু জাফর এ প্রসঙ্গে বলেন, "এই ধরনের কাজ গর্হিত অপরাধ এবং কোনো ভাবেই কাম্য নয়। অভিযুক্ত চাতাল মালিককে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়াও টাকা অনাদায়ে ১৫ দিনের কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে।"